আশুরা ও কারবালা বিষয়ক প্রশ্নোত্তর

আশুরা ও কারবালা বিষয়ক প্রশ্নোত্তর0%

আশুরা ও কারবালা বিষয়ক প্রশ্নোত্তর লেখক:
প্রকাশক: বাংলাদেশ ইসলামী সাংস্কৃতিক পরিষদ,ইরান।
বিভাগ: ইমাম হোসাইন (আ.)

আশুরা ও কারবালা বিষয়ক প্রশ্নোত্তর

লেখক: লেখকবৃন্দ
প্রকাশক: বাংলাদেশ ইসলামী সাংস্কৃতিক পরিষদ,ইরান।
বিভাগ:

ভিজিট: 17986
ডাউনলোড: 1457

আশুরা ও কারবালা বিষয়ক প্রশ্নোত্তর
বইয়ের বিভাগ অনুসন্ধান
  • শুরু
  • পূর্বের
  • 30 /
  • পরের
  • শেষ
  •  
  • ডাউনলোড HTML
  • ডাউনলোড Word
  • ডাউনলোড PDF
  • ভিজিট: 17986 / ডাউনলোড: 1457
সাইজ সাইজ সাইজ
আশুরা ও কারবালা বিষয়ক প্রশ্নোত্তর

আশুরা ও কারবালা বিষয়ক প্রশ্নোত্তর

লেখক:
প্রকাশক: বাংলাদেশ ইসলামী সাংস্কৃতিক পরিষদ,ইরান।
বাংলা

আশুরা ও কারবালা বিষয়ক বিভিন্ন প্রশ্ন ও উত্তর সম্বলিত এ গ্রন্থটিতে হযরত ইমাম হোসাইন (আ.) এর আশুরা বিপ্লব সম্পর্কিত বিভিন্ন  প্রশ্নের উত্তর দেয়া হযেছে

তথ্যসূত্র :

1 .এ ছকটি রেসালাতুল হোসাইন (আ:) পত্রিকার দ্বিতীয় সংখ্যায় প্রকাশিত আহমাদ কাজী লিখিত আল বুদুজ্জামানী ফিস সাওরাতিল হোসাইনিয়া নামক প্রবন্ধ থেকে নেয়া হয়েছে।

2. আল-ইমামাহ ওয়াস সিয়াসাহ , 2য় খণ্ড , পৃ. 180 ;ইবনে আব্দুল বার বলেন , ইসলামের ইতিহাসে একজন মানুষের মাথা কেটে অন্য স্থানে প্রেরণের ঘটনা মুয়াবিয়ার দ্বারা সংঘটিত হয় যখন সে সাহাবী আমর ইবনে হামেকের মাথা কেটে তার কাছে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। আল ইসতিয়াব , 3য় খণ্ড , পৃ. 174।-সম্পাদক

3. ইবনে কুতাইবা দিনওয়ারী , আল-ইমামাহ ওয়াস সিয়াসাহ , 2য় খণ্ড , পৃ. 180 ।

4. মাওসুআতু কালিমাতি ইমাম হোসাইন (আ.) , পৃ. 239।

5. আল-ইরশাদ , শেখ মুফিদ , পৃ. 355।

6. মুয়াবিয়ার মনোনীত শাসক ও সেনাপতিরা কোনপ্রকার অন্যায় ও হত্যা করতে দ্বিধা করত না। তার গভর্নর বুশর ইবনে আরতাত ইয়েমেনে প্রবেশ করে অসংখ্য মুসলমান নারীকে বন্দি করে বাজারে বিক্রি করে (আল ইসতিয়াব , 1ম খণ্ড , পৃ. 240 , সংখ্যা 175) এবং একযুদ্ধে শিশু-বৃদ্ধসহ ত্রিশ হাজার মুসলমানকে হত্যা করে (আলগারাত , 2য় খণ্ড , পৃ. 639) । মুয়াবিয়ার মনোনীত গভর্নরদের দ্বারা সংঘটিত হত্যা , নির্যাতন ও নিপীড়নের বীভৎস ঘটনা বিভিন্ন গ্রন্থে বর্ণিত হয়েছে। দ্রষ্টব্য: তারিখে তাবারী , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 77-81 , কামিল ফিত তারিখ , ইবনে আছির , 3য় খণ্ড , পৃ. 162-167 ও 450 , তারিখে ইবনে আসাকির , 3য় খণ্ড , পৃ. 222 ও 459 ;আলইসতিয়াব , পৃ. 65-66 ;তারিখে ইবনে কাসির , 7ম খণ্ড , 319-322 ;ওয়াফাউল ওয়াফা , 1ম খণ্ড , পৃ. 31 , সিয়ারু আলামিন নুবালা , 3য় খণ্ড , পৃ. 496।-সম্পাদক

7. নাহজুল বালাগা , খুতবা নং 126।

8. তারীখে তাবারী , 3য় খণ্ড , পৃ. 402।

9. আবুল ফারাজ ইসফাহানী , মাকাতিলুত তালিবীয়ীন , 1ম খণ্ড , পৃ. 40। যেমন সে ইমাম হাসানকে একটি পত্রে লিখে : ...তুমি অবশ্যই জান যে , আমি দীর্ঘদিন ধরে মুসলমানদের ওপর কর্তৃত্ব করছি। এ ক্ষেত্রে তোমার থেকে আমি অভিজ্ঞ এবং বয়সেও তোমার চেয়ে বড়।... তাই আমার আনুগত্যের ছায়ায় প্রবেশ কর।

10. মাকাতিলুত তালিবীয়ীন , পৃ. 1ম খণ্ড , পৃ. 80 ;আল-ইরশাদ , পৃ. 357।

11. মাওসুআতু কালিমাতিল ইমাম হোসাইন (আ.) , পৃ. 209 ও 210।

12. আল-আখবারুত তোয়াল , পৃ. 227 ;তাজারিবুল উমাম , 2য় খণ্ড , পৃ. 39।

13. তারীখে ইবনে আসাকির , তারজুমাতুল ইমাম হোসাইন (আ.) , পৃ. 7 , পাদটীকা 5।

14. বিহারুল আনওয়ার , 44 তম খণ্ড , পৃ. 212।

15. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 228 ;আল-ইমামাত ওয়াস সিয়াসাত , 1ম খণ্ড , পৃ. 186।

16. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 228।

17. প্রাগুক্ত ।

18. আল-ইমামাত ওয়াস সিয়াসাত , 1ম খণ্ড , পৃ. 161-164।

19. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 181।

20. মুরুজুয যাহাব , 2য় খণ্ড , পৃ. 395।

21. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 162।

22. আল-কামিল ফিত্ তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 593।

23. প্রাগুক্ত ,পৃ. 563-579।

24. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 404 ও 405।

25. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 211।

26. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 75।

27. ইবনে আ ছাম , আল-ফুতুহ , 5ম খণ্ড , পৃ. 12 ;ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 81।

28. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 77।

29. প্রাগুক্ত , পৃ. 85 ও 86।

30. সূরা কাছাছ 21।

31. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ.103-107।

32. প্রাগুক্ত , পৃ.88।

33. প্রাগুক্ত , পৃ.147।

34. ওয়াসায়েলুশ শিয়া , 1ম খণ্ড , পৃ.246 , কিতাবে হাজ , বাব নং 7 , আবওয়াবুল উমরাহ , 2য় খণ্ড , পৃ. 3।

35. ইবনে কাসীর , আল বিদায়াহ ওয়ান নিহায়াহ , 8ম খণ্ড , পৃ. 159।

36. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 152।

37. সাইয়্যেদ ইবনে তাউস , লুহুফ , পৃ. 82।

38. লুহুফের এ অংশে ভুল করে উমর বিন সাদ বিন আবি ওয়াক্কাসকে তাদের সেনাপতি হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে , কিন্তু অন্য অংশে সঠিক করে আমর বিন সাঈদ বিন আসকে তাদের সেনাপতি হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে।

39. ইবনে আসির , আল কামিল ফিত তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 546।

40. ইবনে আ ‘ ছাম কুফী , আল ফুতুহ , 5ম খণ্ড , পৃ. 67।

41. আল ফুতুহ , পৃ. 66।

42. আল-বিদায়াহ ওয়ান নিহায়াহ , 8ম খণ্ড , পৃ. 162।

43. প্রাগুক্ত ।

44. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 364।

45. মুকাদ্দামে ইবনে খালদুন , পৃ. 211।

46. ইবনে আসির , আল-কামিল ফিত্ তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 545।

47. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 28-36।

48. প্রাগুক্ত , পৃ. 28 , টীকা 1।

49. লুহুফ , পৃ. 84।

50. এ মতবাদের ঐতিহাসিক ধারাবাহিকতা এবং এর প্রতি বিশ্বাসীদের সম্পর্কে জানার জন্য পড়ুন : মুহাম্মাদ সিহহাতী সারদরুদী লিখিত শাহীদে ফাতেহ দার অঈনেয়ে আনদীশে ’ , পৃ. 205-231।

51. শাহীদে ফাতেহ , পৃ. 239।

52. তারীখে তাবারী , 5ম খণ্ড , পৃ. 403।

53. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ.329 ;ইবনে আ ’ সাম , আল-ফুতুহ , 5ম খণ্ড ,

পৃ. 21।

54. শাহীদে ফাতেহ , পৃ. 169।

55. শাহীদে ফাতেহ , পৃ. 170 , উদ্ধৃতি তানজিহুল আমবিয়া , পৃ. 175।

56. বিরোধিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য পড় – ন : শাহীদে ফাতেহ , পৃ. 184-190 এবং 205-231।

57. বিরোধিতা এবং পাল্টা জবাব সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য পড়ুন : রাসূল জাফারিয়ান লিখিত ইরানের ধর্মীয় রাজনৈতিক দল ও উপদলসমূহ , পৃ. 208-214।

58. সাহিফায়ে নূর , 1ম খণ্ড , পৃ. 174।

59. প্রাগুক্ত , 18তম খণ্ড , পৃ. 130।

60. সাহিফায়ে নূর , 2য় খণ্ড , পৃ. 190।

61. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 329।

62. এখানে উল্লেখ করা আবশ্যক যে , কুফাবাসীরা যদিও ইয়াযীদকে খলিফা হিসাবে মেনে নিতে অস্বীকৃতি ও ইমাম হোসাইনকে কুফায় এস নেতৃত্ব গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছিল। কিন্তু তারা ইমাম হোসাইনকে কখনই খেলাফতের প্রকৃত হকদার হিসাবে মনে করে তা করে নি। বরং তাদের প্রায় সকলেই বনি উমাইয়ার শাসনে অতীষ্ঠ হয়ে একজন বিশিষ্ট ব্যক্তি হিসাবে ইমাম হোসেনের-যার সমাজে রাসূলের নাতি হিসাবে জনপ্রিয়তা ও প্রসিদ্ধি রয়েছে-সহযোগিতা চেয়েছে। -সম্পাদক

63. ওয়াকাআতুত তাফ , আবু মিখনাফ , পৃ. 92।

64. প্রাগুক্ত , পৃ. 91।

65. প্রাগুক্ত ।

66. প্রাগুক্ত ।

67. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 215 ও 216।

68. মুরুজুয যাহাব , 3য় খণ্ড , পৃ. 64। ইমাম হোসাইনের কাছে পত্র প্রেরণকারীদের মধ্যে অতি নগণ্যই শিয়া ছিলেন। পূর্বেও কুফায় হযরত আলীর ভক্ত সমর্থকদের সংখ্যা খুবই কম ছিল। বরং বিশেষ ব্যক্তিবর্গ ও গোত্রপতিদের মধ্যে তার বিরোধীদের সংখ্যা বন্ধুদের তুলনায় বেশী ছিল , আর সাধারণ মানুষরা তাদের নেতাদের মত অনুযায়ী চলতো। একারণেই হযরত আলী যখন কুফায় প্রবেশের পর যখন রাসূলের সুন্নাতের বিপরীতে তারাবীহর নামাজ জামাআতের সাথে পড়ার কাজে বাধা দেন , জনতার পক্ষ থেকে চরম বিরোধিতার সম্মুখীন হন। (ইবনে আবিল হাদীদ , শারহে নাহজুল বালাগা , 12তম খণ্ড , পৃ. 283) তিনি পূর্ববর্তী খলিফা কর্তৃক মনোনীত কাজী ও বিচারক শুরাইহকে অপসারণ করার পদক্ষেপ নিলে কুফার জনগণ তার তীব্র প্রতিবাদ করে এবং হযরত আলী বাধ্য হয়ে তাকে তার পদে বহাল রাখেন । -সম্পাদক

69. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 101।

70. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 112।

71. আল-ইরশাদ , পৃ. 418।

72. দিনওয়ারী , আল-আখবারুত্ তোওয়াল , পৃ. 203।

73. ইবনে কাসীর , আল-বিদায়াহ ওয়ান নিহায়াহ , 8ম খণ্ড , পৃ. 163।

74. তারীখে তাবারী , 5ম খণ্ড , পৃ. 356 ,357 ;আল-কামিল ফিত্ তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 535।

75. ইবনে মাসকাভেই , তাজারিবুল উমাম , 2য় খণ্ড , পৃ. 42 ;আল-বিদায়াহ ওয়ান নিহায়াহ , 8ম খণ্ড , পৃ. 152।

76. সিবতে ইবনে জাওযী , তাজকিরাতুল খাওয়াস , পৃ. 138।

77. আল-কামিল ফিত্ তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 537।

78. প্রাগুক্ত , পৃ. 545।

79. প্রাগুক্ত , 1ম খণ্ড , পৃ. 651।

80. বিস্তারিত জানার জন্য দেখুন : আল-গারাত।

81. আল-কামিল ফিত্ তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 431।

82. ওয়াকাআতুত্ তাফ , পৃ. 92।

83. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 344।

84. ওয়াকাআতুত্ তাফ , পৃ. 90-91।

85. তারীখে তাবারী , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 22।

86. প্রাগুক্ত , 5ম খণ্ড , পৃ. 425।

87. প্রাগুক্ত , 5ম খণ্ড , পৃ. 425।

88. প্রাগুক্ত , 5ম খণ্ড , পৃ. 412।

89. ওয়াকাআতুত্ তাফ , পৃ. 93-95।

90. প্রাগুক্ত , পৃ. 95।

91. তারীখে তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 306।

92. আবদুর রাজ্জাক মুকাররাম , মাকতালুল হোসাইন (আ.) , পৃ. 189। তবে এ লোকেরা কেবল রাসূল (সা.) এর দৌহিত্র হিসাবেই তাঁর প্রতি সহানুভূতিশীল ছিল। কখনই তাদের মনে তাঁর প্রতি ঐ ভালবাসা ছিল না যা মানুষকে কারো অনুসরণে ও তার জন্য আত্মত্যাগে উদ্বুদ্ধ ও অনুপ্রাণিত করে। অথচ ইসলাম ও ইসলামের নেতার জন্য দরকার এমন প্রাণোৎসর্গী কর্মী যে তার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যের বিষয়ে সম্যক অবগত এবং তার জন্য নিজেকে উৎসর্গ করতে প্রস্তুত। কিন্তু কুফার জনগণ ইমাম হোসাইনকে কখনই ইসলামের সেই নেতা বলে মনে করত না যার আনুগত্য ওয়াজিব। এ দৃষ্টিকোণ থেকে তারা ইমাম হোসেনের অনুসারী ছিল না।-সম্পাদক

93. ইতিহাসে এদের সংখ্যা কখনই কম ছিল না। বরং কুফার বড় কয়েকটি গোত্র তাদের অধীনে ছিল। কারবালার রণক্ষেত্রে উপস্থিত জনগণের বড় অংশটি এরাই ছিল। এরা হযরত আলী ও ইমাম হোসাইনের প্রতি চরম বিদ্বেষী ছিল , যদিও কুফার পরিস্থিতি প্রথমে তাদের মুসলিম ইবনে আকিলের পক্ষ নিতে বাধ্য করে। কিন্তু অচিরেই তারা তাদের প্রকৃত চেহারায় আবির্ভূত হয়। আশুরার দিন এরাই ইমাম হোসাইনকে উদ্দেশ্য করে বলছিল : হে হোসাইন! হে মিথ্যুকের পুত্র মিথ্যুক। (আল কামিল , ইবনে আছির , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 67) এদেরই একদল ইমাম হোসাইনের এ প্রশ্নের (কেন আমাকে হত্যা করতে চাও ?) জবাবে বলে : তোমার পিতার প্রতি শত্রুতা ও বিদ্বেষের কারণে তোমাকে হত্যা করতে চাই। (ইয়ানাবিউল মাওয়াদ্দাহ , কুনদুযি হানাফী , পৃ. 346) তারাই ইমাম হোসাইনকে নামাজরত দেখে চীৎকার করে বলছিল : হে হোসাইন নামাজ পড়ে তোমার কী লাভ যখন তোমার নামাজ আল্লাহর কাছে গৃহীত হবে না ? (ইবনে কাসির , আল বিদায়া ওয়ান নিহায়া , 8ম খণ্ড , পৃ. 185) তারাই ইমামকে তিরস্কার করে বলছিল : হে হোসাইন , জাহান্নামের সুসংবাদ গ্রহণ কর। (আল কামিল , ইবনে আছির , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 66 ;ইবনে কাসির , আল বিদায়া ওয়ান নিহায়া , 8ম খণ্ড , পৃ. 183) । সুতরাং সেদিন কারবালায় বনি উমাইয়ার সমর্থকরাই ইমাম হোসাইনকে হত্যার জন্য একত্রিত হয়েছিল।-সম্পাদক

94. ওয়াকাআতুত্ তাফ , পৃ. 109।

95. প্রাগুক্ত , পৃ. 110।

96. প্রাগুক্ত , পৃ. 125।

97. প্রাগুক্ত , পৃ. 125।

98. প্রাগুক্ত , পৃ. 126।

99. প্রাগুক্ত , পৃ. 174।

100. তারীখে তাবারী , 3য় খণ্ড , পৃ. 152।

101. প্রাগুক্ত ।

102. আল হায়াতুল ইজতিমাইয়াহ ওয়াল ইকতিসাদিয়াহ ফিল কুফা , পৃ. 49।

103. প্রাগুক্ত ।

104. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 11 ;তারীখে তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ.267।

105. আল-হায়াতুল ইজতিমাইয়াহ ওয়াল ইকতিসাদিয়াহ ফিল কুফা , পৃ. 219।

106. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 125 ;তারীখে তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 277।

107. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 4।

108. হায়াতুল ইমাম হোসাইন (আ.) , 2য় খণ্ড , পৃ. 453।

109. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 8।

110. বালাজুরী , 3য় খণ্ড , পৃ. 180।

111. বালাজুরী , 3য় খণ্ড , পৃ. 180।

112. আল-ফুতুহ , 5ম খণ্ড , পৃ. 91।

113. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 152।

114. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 244 ;লুহুফ , পৃ. 104 ;ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 201।

115. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 317।

116. প্রাগুক্ত ।

117. আনসাবুল আশরাফ , 3য় খণ্ড , পৃ. 189 ;আল-ইরশাদ , পৃ. 453।

118. আবুল ফারাজ ইসফাহানী , মাকাতিলুত তালেবীয়ীন , পৃ. 86 , উদ্ধৃতি বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 51।

119. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 41 ও 42।

120. লুহুফ , পৃ. 123 ও 124।

121. তুরাইহী , আল মুনতাখাব , পৃ. 439

122. বিস্তারিত জানার জন্য পড়ুন: নেয়ামাতুল্লাহ সাফারী ফুরুশানী লিখিত ইযযাত তালাবী দার নেহ্যাতে ইমাম হোসাইন (আ.) প্রবন্ধ যা হুকুমাতে ইসলামী ’ পত্রিকার 26তম সংখ্যায় 79-116 পৃ. প্রকাশিত হয়েছে।

123. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 145।

124. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 140 (উদ্ধৃতি আমালিয়ে শেখ সাদুক , পৃ. 231) ।

125. সাইয়্যেদ ইবনে তাউস , ইকবালুল আমাল , পৃ. 588।

126. শহীদ কাজী তাবাতাবায়ী , তাহকীক দারবারেয়ে আওয়ালীন আরবাঈনে হযরত সাইয়্যেদুশ শোহাদা , 3য় খণ্ড , পৃ. 304।

127. লুহুফ , পৃ. 232 , অবশ্য সুস্পষ্টভাবে ইমাম সাজ্জাদ (আ.)-এর নাম উল্লেখ করেননি।

128. ইকবালুল আ মাল , পৃ. 588।

129. আমিনী মুহাম্মদ আমীন , মাআ রাকবুল হোসাইনী , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 324 , উদ্ধৃতি মাকতালুল খাওয়ারেজমী , 2য় খণ্ড , পৃ. 75।

130. আমিনী মুহাম্মদ আমীন , মাআ রাকবুল হোসাইনী , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 324 , 325 , উদ্ধৃতি মাকতালুল খাওয়ারেজমী , 2য় খণ্ড , পৃ. 75।

131. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 145।

132. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 178 , উদ্ধৃতি কামিলুজ জিয়ারাত , পৃ. 34 ;কাফী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 178।

133. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 178 , মাআ রাকবিল হোসাইনী , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 325-328।

134. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 145।

135. প্রাগুক্ত , পৃ. 178।

136. তাজকেরাতুল খাওয়াস পৃ. 259 ;মাআ রাকবিল হোসাইনী , পৃ. 329।

137. ইবনে সাদ , তাবাকাত , 5ম খণ্ড , পৃ. 112।

138 মাআ রাকবিল হোসাইনী , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 330-331।

139. মাআ রাকবিল হোসাইনী , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 331-335।

140. মাআ রাকবিল হোসাইনী , পৃ. 334 , তাজকেরাতুল খাওয়াস , পৃ. 265।

141. আল বিদায়াহ ওয়ান নিহায়াহ , 8ম খণ্ড , পৃ. 205।

142. মাআ রাকবিল হোসাইনী , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 337।

143. আমীন আমেলী , সাইয়্যেদ মুহসিন , লাউয়ায়িজুল আশজান ফি মাকতালিল হোসাইন (আ.) , পৃ. 250।

144. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 144।

145. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 197 , তাবাকাতে ইবনে সাদ , 5ম খণ্ড , পৃ. 99 ;তারীখে তাবারী , খণ্ড 5 , পৃ. 418 , শেইখ মুফীদ , আল-ইরশাদ , পৃ. 442।

146. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 166।

147. প্রাগুক্ত ।

148. একসীরুল ইবাদাত ফি আসরারিশ শাহাদাত , 2য় খণ্ড , পৃ. 182।

149. এখান থেকে এ প্রশ্নের শেষ পর্যন্ত সকল নাম তারীখে ইমাম হোসাইন (আ.) নামক গ্রন্থের খণ্ড 3 , পৃ. 242-250 হতে উল্লেখ করব। বর্তমানে এ কিতাবের 5টি খণ্ড শিক্ষণ ও প্রশিক্ষণ প্রকাশনী থেকে ছাপা হয়েছে। এ গ্রন্থে কারবালার ঘটনা থেকে শুরু করে বর্তমান সময়কাল পর্যন্ত ইমাম হোসাইন (আ.) সম্পর্কিত বিভিন্ন ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ দেয়া হয়েছে।

150. তারীখে তাবারী , খণ্ড 5 , পৃ. 393।

151. আল মানাকেব , খণ্ড 4 , পৃ. 98।

152. মুসীরুল আহ্জান , পৃ. 27-28।

153. তাজকেরাতুল খাওয়াস , পৃ. 143।

154. বিহারুল আনওয়ার , খণ্ড 45 , পৃ. 4।

155. মুরুজুয যাহাব , 3য় খণ্ড , পৃ. 70।

156. আনসাবুল আশরাফ , খণ্ড 3 , পৃ. 187 ;দীনওয়ারী , আল-আখবারুত তোওয়াল , পৃ. 254 ;ইবনে আশাম , আল ফুতুহু , খণ্ড 5 , পৃ. 183 ;বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 4 ;ফাততালে নিশাবুরী , রাওজাতুল ওয়ায়েজীন , পৃ. 158 ইত্যাদি। শহীদের নাম জানার জন্য দ্রষ্টব্য:

ক. বিহারুল আনওয়ার , 101তম খণ্ড , পৃ. 269-274 , জিয়ারতে নাহিয়ে মুকাদ্দাসে প্রত্যেকটা শহীদের নাম এসেছে এবং তাদের উপর দুরুদ পাঠ করা হয়েছে।

খ. সামাভী , শেইখ মুহাম্মদ , আবসারুল হোসাইন ফি আনসারিল হোসাইন (আ.) নামক গ্রন্থে ইমাম হোসইন (আ.)-এর 113 জন সাথীর নাম ও জীবনী বর্ণনা করা হয়েছে।

গ. ফুজায়েল বিন যুবায়ের লিখিত তাসমিয়াতু মান কুতেলা মাআল হোসাইন (আ.) মিন আহলিহি ওয়া আওলাদিহি ওয়া শীআতিহী নামক প্রবন্ধটি যা তুরাসুনা ’ পত্রিকার 2য় সংখ্যায় (1406 হিজরি) ছাপা হয়েছে।

157. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 166-167।

158. মাকাতিলুত তালেবীন , পৃ. 119 ;শাহীদে জাভীদ , পৃ. 109 হতে সংকলিত।

159. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 163-165।

160. তারীখে তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 359 ;শাহীদে জাভীদ , পৃ. 109 হতে সংকলিত।

161. সিয়ারু আলামিন নুবালা , 3য় খণ্ড , পৃ. 203 ;শাহীদে জাভীদ , পৃ. 109 হতে সংকলিত।

162. ওয়াকাআতুত তাফ , ভূমিকা , পৃ. 32 ;তারীখে তাবারী , খণ্ড 5 , পৃ. 454 হতে সংকলিত।

163. আল কামিল ফিত তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 569।

164. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 34 ও 35 (ভূমিকা) ।

165. ওয়াকাআতুত তাফ , পৃ. 35 ;ভূমিকা তারীখে তাবারী , 5ম খণ্ড , পৃ. 421 ও 422 হতে সংকলিত।

166. শাহীদে জাভীদ , পৃ. 109 ;তারীখে তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 347 ও তাহজীব তারীখে ইবনে আসাকির , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 338 হতে সংকলিত।

167. মোল্লা অগা দারবান্দী , ইকসীরুল ইবাদাত ফি আসরারিশ শাহাদাত , খণ্ড 3 , পৃ. 110।

168. মোল্লা অগা দারবান্দী , ইকসীরুল ইবাদাত ফি আসরারিশ শাহাদাত , খণ্ড 3 , পৃ. 110।

169. শাহিদী , সাইয়্যেদ জাফর , জেন্দেগানীয়ে আলী ইবনুল হোসাইন (আ.) ।

170. জেন্দেগানীয়ে আলী ইবনুল হোসাইন (আ.) , পৃ. 10 ও 11।

171. শেখ মুহাম্মাদ হাদী ইউসুফী লিখিত হাওলুস সাইয়্যেদা শাহরবানু ’ নামক প্রবন্ধ যা রিসালাতুল হোসাইন (আ.) পত্রিকায় ছাপানো হয়েছে (প্রথম বর্ষ , দ্বিতীয় সংখ্যা , রবিউল আওয়াল , 1412 হিজরি) ।

172. বিহারুল আনওয়ার , খণ্ড 46 , পৃ. 8-13।

173. ইফতেখার জাদে , মাহমুদ রেযা , শুউবিয়াহ নাসিওনালিজম ইরান , পৃ. 305 , কতগুলো গ্রন্থ থেকে নামগুলো উল্লেখ করেন , যেমন-বালাজুরী লিখিত আনসাবুল আশরাফ , তাবাকাতে ইবনে সাদ , ইবনে কুতায়বা দিনওয়ারী লিখিত আল-মাআরেফ ’ এবং মুর্বারাদ লিখিত আল-কামেল ’ ইত্যাদি।

174. শাহিদী , জেন্দেগানীয়ে আলী ইবনুল হোসাইন (আ.) , পৃ. 12

175. বিহারুল আনওয়ার , 46তম খণ্ড , পৃ. 9 , টীকা 20।

176. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 369।

177. শাহরবানুর ইতিহাস জানার জন্য পড়ুন : শুউবিয়াহ নাসিওনালিজম ইরান , পৃ. 289-337।

178. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 369 , সাইয়্যেদ জাওয়াদ মুস্তাফাভীর অনুবাদ থেকে উল্লিখিত।

179. আয়াতুল্লাহ খুয়ী , মুজামু রেজালিল হাদীস , 1ম খণ্ড , পৃ. 202 , 13তম খণ্ড , পৃ. 106।

180. আয়াতুল্লাহ খুয়ী , মুজামু রেজালিল হাদীস , 1ম খণ্ড , পৃ. 202 , 13তম খণ্ড , পৃ. 106।

181. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 303।

182. তারীখে কুম , পৃ. 195।

183. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 369।

184. বিহারুল আনওয়ার , 46তম খণ্ড , পৃ. 9।

185. উয়ুনু আখবারির রেযা , 2য় খণ্ড , পৃ. 128।

186. আল-ইরশাদ , পৃ. 492।

187. জেন্দেগানীয়ে আলী ইবনুল হোসাইন (আ.) , পৃ. 12।

188. শুউবিয়াহ , পৃ. 305।

189. হাউলুস সাইয়েদা শাহরবানু , পৃ. 28।

190. শুউবিয়াহ , পৃ. 324।

191. প্রাগুক্ত , পৃ. 304।

192. আল-কামিল ফিত তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 570।

193. হাউলুস সাইয়্যেদা শাহরবানু , পৃ. 28।

194. উয়ুনু আখবারির রেযা (আ.) , 2য় খণ্ড , পৃ. 128।

195. বিহারুল আনওয়ার , 46তম খণ্ড , পৃ. 8।

197. শুউবিয়াহ , পৃ. 326।

197. এ মাযারটি ইমাম যায়নুল আবেদীন (আ.)-এর মাতা শাহরবানু হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই। এ সম্পর্কিত বিস্তারিত জানার জন্য পড়ুন-কারিমীয়ান লিখিত বোস্তান ও দানেশনামে ইরান এবং ইসলাম ’ , শাহরবানু শব্দের বর্ণনায়।

198. আল-ইমামাহ ওয়াস সিয়াসাহ , 2য় খণ্ড , পৃ. 8।

199. সিব্ত ইবনে জাওযী , তাজকেরাতুল খাওয়াস , পৃ. 256।

200. আল-কামিল ফিত তারীখ , 2য় খণ্ড , পৃ. 578।

201. প্রাগুক্ত ।

202. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 241।

203. লুহুফ , পৃ. 82।

204. তাজকেরাতুল খাওয়াস , পৃ. 275 ;

وانسیت انفاذ اعوانك الی حرم الله لتقتل الحسین علیه السلام

তুমি কি এ বিষয়টি ভুলে গিয়েছো যে , হোসাইনকে হত্যার জন্য তুমিই কাবাঘরে তোমার সঙ্গীদের পাঠিয়েছিলে।

205. ইবনে আবদে রাব্বিহ , আল ইকদুল ফারীদ , 5ম খণ্ড , পৃ. 130 ;সুয়ূতী , তারীখুল খোলাফা , পৃ. 165।

206. তারীখে তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 250 ;তাজারেবুল উমাম , 2য় খণ্ড , পৃ. 770।

کتب یزید الی عبید الله بن زیاد ان اغز ابن الزبیر فقال: والله لا اجمعها للفاسق ابدا اقتل ابن. رسول الله و اغزوا ابن زبیر

ইতোপূর্বে ইয়াযীদ মুসলিম ইবনে আকিলকে হত্যার জন্যও ইবনে যিয়াদকে নির্দেশ দিয়েছিল। তারীখে ইবনে কাসির , 8ম খণ্ড , পৃ. 164 ;ইবনে জাওযি , আল মুনতাযেম , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 142।-সম্পাদক

207. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 248।

208. প্রাগুক্ত , পৃ. 254।

209. বিস্তারিত জানার জন্য পড়ুন-আর রাকবুল হোসাইনী ফিশ শাম ওয়া মিনহু ইলাল মাদীনাতিল মুনাওওয়ারাহ , 6ষ্ঠ খণ্ড , মাআর রাকবুল হোসাইনি মিনাল মাদীনা ইলাল মাদীনা , খণ্ড 6 , পৃ. 54-61 গ্রন্থ হতে সংকলিত।

210. তাজকেরাতুল খাওয়াস , পৃ. 29।

211. তাজারেবুল উমাম , 2য় খণ্ড , পৃ. 77।

212. তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 245 ;তারীখে ইবনে কাসির , 8ম খণ্ড , পৃ. 215।

213. ইবনে আবুল হাদীদ , শারহে নাহজুল বালাগা , 14তম খণ্ড , পৃ. 280।

214. মাকতালে খাওয়ারেজমী , 2য় খণ্ড , পৃ. 58 এবং তাজকেরাতুল খাওয়াস , পৃ. 261।

215. নবী-পরিবারকে ইমাম হোসাইনের কর্তিত মাথাসহ ইয়াযীদের সামনে আনা হলে ইয়াযীদ হযরত যায়নাবকে উদ্দেশ্য করে বলে : নিশ্চয় তোমার পিতা ও ভাই আল্লাহর দ্বীন থেকে বের হয়ে গিয়েছিল। ’ হযরত যায়নাব জবাবে বলেন : বরং তোমার দাদা , পিতা ও তুমিই আল্লাহর দ্বীন , আমার নানা , আমার পিতা ও আমার ভাইয়ের ধর্মের দিকে হেদায়াত পেয়েছ। ’ তারীখে তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 353-সম্পাদক

216. আল-কামেল , ইবনে আছীর , 2য় খণ্ড , পৃ. 593 ;তারীখে ইবনে কাসির , 8ম খণ্ড , পৃ. 243 , তারীখুল ইসলাম , যাহাবী , পৃ. 30 ;ইবনে কাসির ও যাহাবী ইমাম হোসাইনের হত্যার বিষয়টি সরাসরি ইয়াযীদের সাথে সম্পর্কিত করেছেন। যাহাবি তাঁর সিয়ারু আলামিন নুবালা ’ গ্রন্থে (4র্থ খণ্ড , পৃ. 37) ইয়াযীদের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে বলেন: ইয়াযীদ নাসেবী (নবী সা.-এর আহলে বাইতের প্রতি চরম বিদ্বেষী) ছিল , সে কঠোর ও রুক্ষ স্বভাবের , অশ্লীল কাজ করত ও মদ্যপ ছিল , তার হুকুমত হোসাইনের হত্যার মাধ্যমে শুরু হয় ও মদীনার লোকদের হত্যা দিয়ে সমাপ্তি ঘটে।-সম্পাদক।

217. আল-কামেল , ইবনে আছীর , 2য় খণ্ড , পৃ. 602।

218. মিযানুল হিকমাহ , 3য় খণ্ড , পৃ. 80।

219. গুরারুল হিকাম , 2য় খণ্ড , পৃ. 400।

220. সূরা তওবা , আয়াত 71।

221. উসূলে কাফী , 5ম খণ্ড , হাদীস 1 , পৃ. 55।

222 বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , অধ্যায় 37 , হাদীস 2।

223 মাকতালে খাওয়ারেজমি , 1ম খণ্ড , পৃ. 188।

224 প্রাগুক্ত , পৃ.185।

225. (সৎকাজে আদেশ ও অসৎকাজে নিষেধ) শুধু ক্ষমতাবান ও জ্ঞাত (ইসলামের ও শরীয়তের দৃষ্টিতে সৎকাজ ও অসৎকাজ কোনটি সে সম্পর্কে অবহিত) ব্যক্তিদের ওপর ওয়াজিব বা অপরিহার্য কর্তব্য। (ফুরুয়ে কাফী , 5ম খণ্ড , পৃ. 59)

226. শারতে ওজুব হলো শরীয়তের বিধানটি ব্যক্তির ওপর অপরিহার্য হওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় শর্তগুলো অর্জন করা তার ওপর আবশ্যক নয় , বরং যদি আপনাআপনিই ঐ শর্তগুলো তার মধ্যে বিদ্যমান থাকে তাকে তা সম্পাদন করতে হবে। যেমন সম্পদহীন বা স্বল্প সম্পদের ব্যক্তির জন্য হজে যাওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় সম্পদ অর্জন করা বা যাকাত দেয়ার জন্য পরিশ্রম করে সম্পদকে যাকাত অপরিহার্য হওয়ার নিসাব পর্যন্ত পৌঁছানোর কোন দায়িত্ব তার নেই। কোন ব্যক্তির যদি স্বাভাবিকভাবেই ঐ পরিমাণ সম্পদ থাকে তবে হজ বা যাকাত তার জন্য অপরিহার্য হবে। কিন্তু শারতে ওজুদ হলো যে ফরয দায়িত্ব পালনের প্রয়োজনীয় শর্তাবলি ব্যক্তিকে অবশ্যই অর্জন করতে হবে। যেমন , নামাযের জন্য পোশাক ও দেহকে পবিত্র করা।-সম্পাদক

227. ফুরুয়ে কাফী , 5ম খণ্ড , পৃ. 55।

228. হামাসেয়ে হোসাইনী , 1ম খণ্ড , পৃ. 304-312।

229. ইবনে আবি শাইবা , আল মুসান্নাফ , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 380 ;তিরমিজি , সুনানুত তিরমিজি , 5ম খণ্ড , পৃ. 658 , হা. 3775 , তিরমিজি হাদীসটি হাসান বলেছেন ;হাকিম নিশাবুরী , মুসতাদরাক আলাস সাহিহাইন , 3য় খণ্ড , পৃ.194 , সহীহ সূত্রে বর্ণিত ;আহমাদ কেনানী , মিসবাহুয যুজাজাহ , 1ম খণ্ড , পৃ. 22 ;হাইসামী , মাজমাউয যাওয়াইদ , 9ম খণ্ড , পৃ. 181 ;ইবনে হাব্বান , আসসাহিহ , 15খণ্ড , পৃ. 427 ;আলবানী , সিলসিলাতু আহাদিসিস সাহিহাহ , 3য় খণ্ড , পৃ. 229 ;মুসনাদ , আহমাদ ইবনে হাম্বাল , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 172 ;ইবনে মাজাহ , সুনান , 1ম খণ্ড , পৃ. 51 ;তাবারানী , আল মুজামুল কাবির , 3য় খণ্ড , পৃ. 33।-সম্পাদক

230. মাকতালে খাওয়ারেজমী , খণ্ড 2 , পৃ. 58 ;তাযকিরাতুল খাওয়াস , পৃ. 261।

231. ইয়াকুবী ও খাওয়ারেজমীর বর্ণনানুযায়ী ইয়াযীদ ওয়ালিদকে সুস্পষ্টভাবে লিখেছিল: যদি হোসাইন ও ইবনে যুবাইর বাইয়াত করতে অস্বীকার করে তবে তাদের শিরো-েদ করে আমার নিকট পাঠিয়ে দাও। ’ তারীখে ইয়াকুবী , 2য় খণ্ড , পৃ. 15 ;মাকতালে খাওয়ারেজমী , 1ম খণ্ড , পৃ. 180) ।

232. ইবনে আ ’ ছাম , আল ফুতুহ , 5ম খণ্ড , পৃ. 18।-সম্পাদক

233. সুমুউল মা না , পৃ. 113 ও 114 ;মাকতালুল হোসাঈন খাওয়ারেজমী , পৃ. 184 , অধ্যায় 9।

234. একজন বিখ্যাত মুসলিম কবি।-অনুবাদক

235. তাযকিরাতুল খাওয়াস , পৃ. 252।

236. তারীখে তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 262।

237. সুমুউল মা না , পৃ. 118।

238. আল-আদালাতুল ইজতেমাইয়্যাহ ফিল ইসলাম , পৃ. 180 ও 181।

239. মা না , পৃ. 181।

240. আল-ইসলাম ওয়াল ইসতিবদাদুস সিয়াসী , পৃ. 187 ও 188।

241. সুমুউল মা না , পৃ. 28। যেমন মুয়াবিয়া শুক্রবারের স্থলে বুধবারে জুমুআর নামায পড়ায়। (মাসউদী , মুরুজুয যাহাব , 2য় খণ্ড , পৃ. 172) ;মুয়াবিয়া বলত: আমি হলাম প্রথম সম্রাট। আলবিদায়া ওয়ান নিহায়া , 8ম খণ্ড , পৃ. 135 ;আমি নামাজ , রোজা ও যাকাত প্রতিষ্ঠার জন্য ক্ষমতা গ্রহণ করি নি। তোমাদের ওপর শাসন করার জন্য এসেছি। সুলহে ইমাম হাসান , পৃ 280 ;ঐতিহাসিক মাদায়েনীর উদ্ধৃতি দিয়ে বর্ণিত-সম্পাদক

242. তাযকিরাতুল খাওয়াস , পৃ. 283।

243. সূরা তওবা , আয়াত 52।

244. আল-আদ্ল পত্রিকা , সংখ্যা 9 , বর্ষ 2 , পৃ. 6।

245. দেখুন: তারীখে তাবারী , 5ম খণ্ড , পৃ. 424-427।

246. প্রাগুক্ত , পৃ. 417।

247. সূরা জ্বীন , আয়াত : 26-27।

248. রাব্বানী খালখালী , আলী ;চেহরেয়ে দেরাখশানে হোসাঈন বিন আলী (আ.) , পৃ. 134-140।

249. তারীখে তাবারী , 4ম খণ্ড , পৃ. 292 , আল-হাসান ওয়াল হোসাইন সেব্তাই রাসূলিল্লাহ , পৃ. 91 ও 92।

250. কামকামু যুখার , পৃ. 215 ;নাজ্মুদ দুরারুস সিমতাইন , পৃ. 215। আরো বিস্তারিত জানার জন্য দেখুন: মাকতালে খারেজমী , অধ্যায় 8 , পৃ. 160 , অধ্যায় 9 , পৃ. 187 , অধ্যায় 10 , পৃ. 218 , 191 , 192 ;তাবারী , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 31 ;তারজামে তারিখে ইবনে আছাম , পৃ. 346 ;কামিল ফিত তারিখ , 3য় খণ্ড , পৃ. 278 ;কামকাম যুখার , পৃ. 263-333. ।

251. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 364।

252. খ্রিস্টানদের ভ্রান্ত ধারণা এই যে , আদমই (পুরুষই) কেবল মৌলিকত্বের অধিকারী আর হাওয়া শুধু অনুসরণকারী। কিন্তু কোরআন এ চিন্তার কঠোর বিরোধী। এ সম্পর্কে ওস্তাদ আয়াতুল্লাহ শহীদ মোতাহ্হারী বিশদভাবে আলোচনা করেছেন। দেখুন : হামাসায়ে হোসাইনী , 1ম খণ্ড ।

253. হামাসায়ে হোসাইনী , 1ম খণ্ড ,

254. শাহিদী , সাইয়্যেদ জাফর , কিয়ামে ইমাম হোসাঈন (আ.) , পৃ. 185।

255. আয়াতী , মুহাম্মদ ইবরাহীম , বাররাসীয়ে তারীখে আশুরা , পৃ. 47। সিরিয়ার লোকদের সামনে মুয়াবিয়া হযরত আলীকে বেনামাজী ও রাসূলের শত্রু বলে পরিচিত করিয়েছিল ও তারাও তা বিশ্বাস করে নিয়েছিল। তারীখে তাবারী , 3য় খণ্ড , পৃ. 94। মুয়াবিয়া শুক্রবারের স্থানে বুধবারে নামাজ পড়ালেও তারা তা সঠিক বলে মেনে নিত। হযরত আলীকে একজন মরুদস্যু হিসাবে চিনত। তারা এমনকি উটের নর ও মাদীর মধ্যেও পার্থক্য করতে পারত না। মাসউদি , মুরুজুয যাহাব , 3য় খণ্ড , পৃ. 41-42। -সম্পাদক

256. ইবনে আবীল হাদীদ , শারহে নাহজুল বালাগা , 7ম খণ্ড , পৃ. 159।

257. সূরা আহযাব , আয়াত : 33।

258. আখতাব খাওয়ারেজমী , মাকতালুল হোসাইন (আ.) , 2য় খণ্ড , পৃ. 61 , আল-লুহুফ , পৃ.74।

259. জন সালভিন শাপিরো , লিবারিলিজ্ম , পৃ. 157।

260. জ্যাঁজ্যাক শোয়ালিয়া , পৃ. 104।

261. জিন হ্যাম্পটন , রাজনীতির দর্শন , পৃ. 107।

262. সুরুশ মোহাম্মদ , প্রতিরোধ ও বৈধতা , ত্রৈমাসিক হুকুমতে ইসলামী পত্রিকা , সপ্তম বর্ষ , সংখ্যা 3 , পৃ. 79 , 1381 ফারসি বর্ষ।

263. রাজনীতির দর্শন , পৃ. 117।

264. এলেন তুনিয়েটা , গণতন্ত্রের ভিত্তির পর্যালোচনা , পৃ. 43 , 71 ।

265. ফ্রান্টেস নিউম্যান , স্বাধীনতা , ক্ষমতা ও আইন , পৃ. 368।

266. প্রতিরোধ আন্দোলন ও সরকারের বৈধতা , পৃ. 81।

267. রাজনীতির দর্শন , ইমাম খোমেইনী শিক্ষা ও গবেষণা সংস্থা রচিত , পৃ. 127।

268. প্রতিরোধ আন্দোলন ও সরকারের বৈধতা , পৃ. 81।

269. জ্যাক রুশো জন , সামাজিক চুক্তি।

270. মওসুয়াতুল ফেকহীয়া , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 220।

271. আন্দোলন ও বৈধতা , পৃ. 84।

272. ইমাম খোমেইনী (রহ.) বেলায়েতে ফকীহ্ , পৃ. 37।

273. কুলাইনি , ফুরুয়ে কাফি , 5ম খণ্ড , পৃ. 21।

274. সহীহ হাদীস ও ইতিহাস গ্রন্থসমূহ থেকে প্রমাণিত যে , হযরত ফাতিমা (আ.) মৃত্যু পর্যন্ত হযরত আবু বকরের সাথে তাঁর আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে কথা বলেন নি। ইবনে সাদ , আত-তাবাকাত , 2য় খণ্ড , 257 ;সহীহ বুখারী , 5ম খণ্ড , পৃ. 82-84 ;সহীহ মুসলিম , 5ম খণ্ড , পৃ. 153। এ থেকে প্রমাণিত হয় হযরত ফাতিমা তাঁর হাতে বাইআত করেন নি।-সম্পাদক

275. মুহাম্মাদ বাকের মাজলিসি , বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 325।

276. নাহজুল বালাগা , পত্র 62।

277. মওসুয়াতে কালেমাতে ইমাম হোসাইন , পৃ. 314।

278. তারীখে তাবারী , 3য় খণ্ড , পৃ. 306।

279. তাযকিরাতুল ফুকাহা , 5ম খণ্ড , পৃ. 410।

280. নাহজুল বালাগা , পত্র নং 38।

281. আল-জামাল , শেখ মুফিদ , পৃ. 420।

282. মাশরুইয়াত ওয়া মোকাভামাত , পৃ. 106 (ফারসি)

283. শহীদ বাকের সাদর , মিনহাজুস সালেহীন , 1ম খণ্ড , পৃ. 11।

284. সহিফায়ে ইমাম , 21তম খণ্ড , পৃ. 436।

285. বাযারগান , মাহদী , আখেরাত ওয়া খোদা হাদাফে বেসাত , পৃ. 43।

286. ইবনে আছাম কুফি , আল-ফুতুহ , 5ম খণ্ড , পৃ.21 ;খাওয়ারেযমি , মাকতালুল হোসাইন , 1ম খণ্ড , পৃ. 188-189 ;বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 329।

287. সাইয়্যেদ জাওয়াদ রুয়ী , ইমাম হোসাইনের দৃষ্টিতে ধর্মীয় শাসন , পৃ. 288।

288. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 315

289. কাদ্রদানি কারামালেকি , সেক্যুলারিজম দার ইসলাম ওয়া মাসিহিয়াত , পৃ. 317।

290. ইমাম হোসাইনের বাণীসমগ্র , পৃ , 278 ;মাকতালে খাওয়ারেযমি , 1ম খণ্ড , পৃ. 182।

291. ঐ , 315।

292. প্রাগুক্ত , পৃ. 377।

293. প্রাগুক্ত , পৃ. 117 ;ইবনে আসাকির , তারীখে দিমাশক , তারজামায়ে ইমাম হোসাইন (ইমাম হোসাইনের জীবনী পর্ব) , পৃ. 141 , হাদীস 178-180।

294. ইবনে আসির , আল-কামিল ফিততারীখ , 3য় খণ্ড , পৃ. 267 , খাওয়ারেযমি , মাকতাল , 1ম খণ্ড , পৃ. 195-196।

295. নাহজুল বালাগা , খুতবা 124 (সূত্রভেদে 126 নং খুতবা) ।

296. আবু জাফর তাবারী , তারীখুল উমাম ওয়াল মুলুক , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 271।

297. সূরা মায়েদা , আয়াত নং 32।

298. আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক ম্যাগাজিন , 1372 ফার্সি সাল , সংখ্যা 2 ও 3 , পৃ. 32।

299. বিস্তারিত তথ্যের জন্য: সিরাতে ইবনে হিশাম , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 51 , 52 ;তাফসিরে মাজমাউল বায়ান , 9ম খণ্ড , পৃ. 848 ;সাফিনাতুল বিহার , 8ম খণ্ড , পৃ. 18।

300. জাফর সুবহানী , রাসূল (সা.)-এর ইতিহাসের খণ্ডাংশ , পৃ. 443।

301. পূর্বোল্লিখিত প্রমাণ ও গ্রন্থসমূহ।

302. সাহিফায়ে নূর , 21তম খণ্ড , পৃ. 86।

303. তাহরিরুল ওয়াসিলাহ , 1ম খণ্ড , পৃ. 462 ;সৎকাজের আদেশ ও অসৎকাজের নিষেধের বিভিন্ন পর্যায়ের আলোচনা দ্রষ্টব্য।

304. ফিকহুল হুদুদ ওয়াত তাযিরাত , আয়াতুল্লাহ মুসাভী আরদেবেলী , পৃ. 511-521।

305. যেমন : ফেদাইয়ানে ইসলাম , হাইয়াতে মোতালাফা ইত্যাদি ইসলামী দল।

306. বিস্তারিত তথ্যের জন্য , সাইয়্যেদ হামিদ রুহানী রচিত ইমাম খোমেইনীর আন্দোলন , মোহাম্মদী মানুচেহের রচিত ইরানী ইসলামী বিপ্লবের পর্যালোচনা , আলী দাওয়ানী , ইরানী আলেমদের আন্দোলন।

307. মিশেল ফুকো , ইরানীদের মাথায় কী স্বপড়ব রয়েছে।

308. আবদুল ওয়াহহাব ফোরাতি , যিয়াফাতহয়ে নাযারি বার ইনকিলাবে ইসলামী , পৃ. 297।

309. প্রাগুক্ত।

310. আশুরার শিক্ষা , পৃ. 189।

311. ইমাম খোমেইনীর বাণী ও বর্ণনায় আশুরা আন্দোলন , পৃ. 55।

312. কাওয়াকিয়ান মোস্তফা , হাফ্ত কাতরে আয জারিয়ে যুলালে আনদিশেয়ে ইমাম খোমেইনী , পৃ. 229 (ফারসি) ।

313. 29-10-1357 ফারসি সালে ইরানী জনগণের সর্বোচ্চ বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয় এর 23 দিন পর 22-11-1357 ফারসি সালে (11ফেব্রুয়ারী 1979) ইসলামী বিপ্লব বিজয়ী হয়।

314. সহিফায়ে (বাণীসমগ্র) ইমাম (খোমেইনী) , 16তম খণ্ড , পৃ. 290।

315. সহিফায়ে ইমাম , 16তম খণ্ড , পৃ. 346।

316. প্রাগুক্ত ।

317. হাফ্ত কাতরে , পৃ. 235।

318. সহিফায়ে ইমাম , 17তম খণ্ড , পৃ. 58।

319. প্রাগুক্ত , 15তম খণ্ড , পৃ. 230 ও 231।

320. সূরা শুরা , আয়াত 23 , সূরা হুদ , আয়াত 29 এবং মিজানুল হিকমাহ , 2য় খণ্ড , পৃ. 236।

321. আল-মাহাব্বাত ফীল কিতাব ওয়াস সুন্নাহ , পৃ. 169-170 , 181-182।

322. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 287।

323. আমালী , পৃ. 305।

324. মুয়াবিয়া ইবনে ওয়াহহাবকে উদ্দেশ্য করে ইমাম জাফর সাদিক (আ.) বলেন : শোক প্রকাশকারীরা যেন শহীদদের নেতা ইমাম হোসাইন (আ.)-এর জন্য আশুরার দিনে পানি পান ও খাদ্য গ্রহণ থেকে ততক্ষণ বিরত থাকে যতক্ষণ না আসরের নামাযের ফজিলতের সময় থেকে এক ঘণ্টা আতিবাহিত হয় , (এ সময়ের পর) যেন শোকার্ত ব্যক্তির মতো সামান্য খাদ্য ও পানীয় গ্রহণ করে। ’ -তারীখু নিয়াহাতুল ইমামিশ শাহিদ আল-হুসাইন ইবনে আলী , 1ম খণ্ড , পৃ. 175-195।

325. আশুরার অভিধান ,(فرهنگ عاشورا ) পৃ. 268-671 ;হোসাইন , আকলে সোরখ , পৃ. 77-119 ;ইমাম হাসান ও হোসাইন (আ.) , পৃ. 116-121।

326. পবিত্র কোরআনে এরূপ প্রতিবাদ করার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সূরা নিসা : 148 , সূরা হজ : 39 , সূরা শোয়ারা : 227।-সম্পাদক

327. পবিত্র কোরআনেও আল্লাহর নবীদের ওপর আপতিত মুসিবত ও মুমিনদের শাহাদাতের কথা বিশেষ আবহে স্মরণ করা হয়েছে যা তাঁদের প্রতি মহান আল্লাহর সহানুভূতি ও শোকপ্রকাশের চিহ্ন। যেমন সূরা বুরুজে মুমিনদের একদলের শহীদ হওয়ার ঘটনাকে আল্লাহ করুণভাবে উপস্থাপন করেছেন যা পাঠে সকল মুমিনের অন্তর শোকে মূহ্যমান হয়। নবীদের জীবনীতেও আমরা এরূপ শোক প্রকাশের নমুনা দেখতে পাই। যেমন হযরত ইয়াকুব হযরত ইউসূফ (আ.)-কে হারিয়ে দীর্ঘদিন এতটা ক্রন্দন করেছিলেন যে , তাঁর চোখ দু ’ টি সাদা হয়ে গিয়েছিল। অথচ তিনি জানতেন হযরত ইউসূফ বেঁচে আছেন। (সূরা ইউসূফ : 84-87) । -সম্পাদক

328. বিহারুল আনওয়ার , 43তম খণ্ড , পৃ. 222।

329. প্রাগুক্ত , পৃ. 287।

330. প্রাগুক্ত , পৃ. 282 ও 289।

331. তারীখে ইয়াকুবি , 2য় খণ্ড , পৃ. 246 , সুয়ূতি , তারীখুল খোলাফা , পৃ , 208 , ইবনে আব্বাস সূত্রেও অনুরূপ বর্ণনা এসেছে : মুসনাদে আহমাদ , 1ম খণ্ড , পৃ. 283 ও আল-মুসতাদরাক , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 397। স্বয়ং আল্লাহর রাসূল জিবরাইল (আ.) থেকে ইমাম হোসাইনের শাহাদাতের খবর (ভবিষ্যদ্বাণী) শুনে ক্রন্দন করেছেন। দ্রষ্টব্য : মুসনাদে আহমাদ , 1ম খণ্ড , পৃ. 184 ও 648 ;মুসনাদে আবি ইয়ালা , 1ম খণ্ড , পৃ. 206 , হাদীস 358 ;আল-মুসতাদরাক আলাস সাহিহাইন , 3য় খণ্ড , পৃ , 176 ও 179 ;মাজমাউয যাওয়ায়েদ , 9ম খণ্ড , পৃ , 179 ;আসসাওয়ায়েকুল মুহরিকা , পৃ. 115 , অন্য সংস্করণে পৃ. 196 ;ইবনে সাব্বাগ মালেকী , আল-ফুসুলুল মুহিম্মাহ , পৃ. 154 ;কানযুল উম্মাল , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 223 ;নাসায়ী , খাসায়িসুল কুবরা , 2য় খণ্ড , পৃ. 125 ;তারীখে ইবনে কাসির , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 230 ও 8ম খণ্ড , পৃ. 199 , মাকতালে খাওয়ারেযমি , 1ম খণ্ড , পৃ. 159 ও 163 ;ইবনে আছাম , আল-ফুতুহ , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 325।-সম্পাদক

332. ইমাম হাসান এবং হোসাইন (আ.) , পৃ. 145।

333. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 146।

334. প্রাগুক্ত , 1ম খণ্ড , পৃ. 131।

335. প্রাগুক্ত , 45তম খণ্ড , পৃ. 131।

336. মিসবাহুল মুতাহাজ্জেদ , পৃ. 713।

337. ইমাম হাসান ও ইমাম হোসাইন (আ.) , পৃ. 143।

338. হোসাইন , নাফ্সুন মুতমাইন্নাহ্ , পৃ. 56।

339. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 284।

340. প্রাগুক্ত , 45তম খণ্ড , পৃ. 258।

341. প্রাগুক্ত , 101তম খণ্ড , পৃ. 320।

342. কারণ , বনি উমাইয়া , বনি যুবাইর ও বনি আব্বাসের শাসকরা মহানবী (সা.)-এর বংশধরদের ওপর চরম নির্যাতন চালাত এবং তাদের সবধরনের তৎপরতা ও কর্মকা-কে তীক্ষ è নজরে রাখত। ইমাম হোসাইন (আ.)-এর জন্য শোকানুষ্ঠানের আয়োজন একদিকে তাদের অন্যায়-অবিচারকে প্রকাশ , অন্যদিকে আহলে বাইতের অধিকারকে প্রমাণ করত যা তাদের শাসনের জন্য হুমকি বলে বিবেচিত হতো। তাই তারা এধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনে কঠোরভাবে বাধা দিত। কঠোরতার দিক থেকে মুতাওয়াক্কিল সবাইকে ছাড়িয়ে গিয়েছিল। এমনকি সে ইমাম হোসাইনের মাযারকে মাটিতে মিশিয়ে দেয় ও সেখানে চাষের জন্য নির্দেশ দেয়। (ইবনে আসির , আল-কামিল ফিত তারীখ , 7ম খণ্ড , পৃ. 36-37) । এক্ষেত্রে উমাইয়া খলিফা উমর ইবনে আবদুল আজীজ ও আব্বাসী খলিফা নাসির বিল্লাহ ও মুনতাসির ব্যতিক্রম ছিলেন।-সম্পাদক

343. আল-মুনতাজাম ফি তারিখিল মুলুক ওয়াল উমাম , 7ম খণ্ড , পৃ. 15।

344. তাকমিলাতু তারিখিত তিব্বি , পৃ. 183।

345. মিরআতুল জিনান , 3য় খণ্ড , পৃ. 247 , উদ্দেশ্য হলো ইমাম হোসাইন (আ.)-এর জন্য প্রকাশ্যে শোকপ্রকাশ।

346. আন নুজুমুজ যাহিরা ফি মুলুকে মিসরীন ওয়া কাহিরাতেন , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 218।

347. আলখুতাত , মাকরিজী , 2/289 ;আন নুজুমুজ যাহিরা ফি মুলুকে মিসরীন ওয়া কাহিরাতেন , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 126 (366 হিজরীর ঘটনার অংশে) ;মাকরিজীর ইত্তিয়াজুল হুনাফা গ্রন্থে , 2য়খণ্ড , পৃ. 67 ;সিয়াহপুশী দারসুগে আয়েম্মে নূর থেকে বর্ণিত , পৃ. 161-162।

348. মাকালাতে তারিখি , রাসুল জাফারিয়ান , 1মখণ্ড , পৃ. 183-185 , 201-206।

349. উম্মুল মুমিনীন আয়েশা বলেন: যখন আল্লাহর রাসূল (সা.) ইন্তেকাল করলেন আমি কিছুসংখ্যক নারীকে সাথে নিয়ে সমবেতভাবে করুণস্বরে ক্রন্দন করছিলাম এবং মাথা ও বুক চাপরাচ্ছিলাম। ’ (মুসনাদে আহমাদ , 7ম খণ্ড , পৃ. 390 , হাদিস 25816 ;মুসনাদে আবু ইয়ালা , হাদীস 4568।-সম্পাদক

350. মওসুয়াতুল আতাবাতিল মুকাদ্দাসাহ , 8ম খণ্ড , পৃ. 378।

351. মুসিকিয়ে মাযহাবীয়ে ইরান , পৃ. 26।

352. ফারহাঙ্গে আশুরা , পৃ. 346।

353. মহান আল্লাহ বলেন : (হে রাসূল!) তুমি ক্ষমার পথ অবলম্বন কর এবং পছন্দনীয় কর্মের নির্দেশ দাও , আর অজ্ঞদের উপেক্ষা কর। (সূরা আরাফ : 199) এ আয়াতে রাসূল (সা.)-কে পছন্দনীয় কর্মের নির্দেশ দিতে বলা হয়েছে। পছন্দনীয় কর্ম বলতে বুদ্ধিবৃত্তি , বিবেক ও শরীয়তের দৃষ্টিতে গ্রহণযোগ্য প্রচলিত সামাজিক প্রথা , আচরণ ও রীতি-নীতি বুঝানো হয়েছে। পবিত্র কোরআন আরবে প্রচলিত অনেক কুসংস্কারপূর্ণ , অশালীন , মন্দ ও অনৈতিক কাজকে অবৈধ বলে প্রত্যাখ্যান ও তার ধ্বংসে পদক্ষেপ নিলেও অনেক প্রচলিত আচার ও রীতিকে ভালো ও পছন্দনীয় বলে সমর্থন দিয়েছে ও মেনে নিয়েছে। যেমন অতিথিপরায়ণতা , নিকটাত্মীয়দের ভালোবাসা , আমানতদারি , প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ না করা ইত্যাদি। কখনও কখনও কোরআন প্রচলিত কোন রীতিকে সংস্কার ও পরিশোধিত করে ইসলামের অন্তর্ভুক্ত করেছে। যেমন : মক্কার মুশরিকরা চার মাস যুদ্ধ করাকে নিজেদের মধ্যে হারাম করেছিল , কিন্তু নিজেদের স্বার্থে কখনও কখনও তা পরিবর্তন করে এগিয়ে আনত বা পিছিয়ে দিত। আল্লাহ এর মূল বিষয়টি অর্থাৎ চার মাস যুদ্ধ নিষিদ্ধ হওয়াকে ইসলামেও ফরয করেছেন ও তা ভঙ্গ করাকে হারাম বলেছেন। কিন্তু তা অগ্র-পশ্চাৎ ও পরিবর্তন করাকে হারাম করেছেন (তওবা : 37) । তেমনি সুদমুক্ত ঋণদান ও ব্যবসায়িক লেনদেনকে বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। প্রচলিত শালীন পোশাককে গ্রহণ ও অশালীন পোশাককে প্রত্যাখ্যান , বৈধ খাবারগুলোকে খাওয়ার অনুমতি ও শরাব , মদ , নেশাকর দ্রব্য ও অন্যান্য ক্ষতিকর খাদ্যকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।-সম্পাদক

354. ইমাম হোসাইন নাফ্সে মুতমাইন্নাহ , পৃ. 5-18।

355. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 223 , 243 , 244 , 245 , 281 , 282 , 289 , 291 , 293 এবং... ।

356. শেখ সাদুক , আমালী , পৃ. 77।

357. ইয়দ দশতহয়ী দার যামিনে ফারহাঙ্গ ওয়া তারীখ , পৃ. 272-273।

358. ইবনে আসির , একজন প্রসিদ্ধ ইতিহাসবিদ লিখেছেন : আবু মুসলিম খোরাসানী একদিন বক্তব্য রাখার সময় এক ব্যক্তি দাঁড়িয়ে প্রশ্ন করেছিল : তোমার নিকটে যে কালো নিদর্শন দেখতে পাচ্ছি তা কী কারণে ব্যবহার করছ। ’ তখন আবু মুসলিম বলেছিল : আবু জুবায়ের অর্থাৎ জাবের ইবনে আবদুল্লাহ আনসারী বর্ণনা করেছেন : রাসূল (সা.) মক্কা বিজয়ের সময় কালো পাগড়ি পরেছিলেন। কারণ , এ পোশাক হলো ব্যক্তিত্ব প্রকাশক ও সরকারি পোশাক। (তরজমায়ে আল-কামিল , 9ম খণ্ড , পৃ. 114)

359. বিহারুল আনওয়ার , 43তম খণ্ড , পৃ. 174-180।

360. সিয়াহপুশী দারসুগে আয়েম্মে নূর থেকে বর্ণিত , পৃ. 31-53।

361. মুজামুল বুলদান , হামাবী , 3য় খণ্ড , পৃ. 452 ও তারীখে গিলান ও দিলিমেস্তান , পৃ. 223।

362. বিশ্বকোষ , 6ষ্ঠ খণ্ড , পৃ. 710-722।

363. রাবিউল আবরার ওয়া নুসুসুল আখবার , 3য় খণ্ড , পৃ. 747।

364. রাবিউল আবরার ওয়া নুসুসুল আখবার , 3য় খণ্ড , পৃ. 747।

365. আখবারুদ দাওলাতিল আব্বাসিয়া , পৃ. 247।

366. সিরাতুন নাবাবিয়া , 3য় খণ্ড , পৃ. 10-11।

367. দেখুন : চতুর্থ হিজরির ইসলামী সভ্যতা , 2য় খণ্ড , পৃ. 127।

368. শারহে নাহজুল বালাগা , 16তম খণ্ড , পৃ. 22।

369. শারহে নাহজুল বালাগা , 7ম খণ্ড , পৃ. 172।

370. আখবারুদ দাওলাতিল আব্বাসিয়া , পৃ. 230-232 , 242।

371. সিয়াহপুশী দারসুগে আয়েম্মে নূর থেকে বর্ণিত , পৃ. 195-200 , 129-155 , 76 ও 77।

372. পিরামুনে আজাদারি আশুরা , আয়াতুল্লাহ আলী খামেনেয়ীর আশুরা সম্পর্কে প্রশ্নোত্তর বক্তব্যের সংকলন।

373. সূরা আনআম , আয়াত 162।

374. শাহাদাতের লগেড়ব যখন ইমাম হোসাইনের শির বিচ্ছিন্ন করা হচ্ছিল তখন তিনি আল্লাহর সঙ্গে মোনাজাতে বলছিলেন : হে ইলাহ্! আমি আপনার সন্তুষ্টিতেই সন্তুষ্ট এবং আপনার নির্দেশের সামনে আত্মসমর্পিত। (কারণ) আপনি ছাড়া কোন মাবুদ নেই। আপনি ছাড়া আমার কেউ নেই , যার কোন সহায় ও সাহায্যকারী নেই , আপনিই তো তার সহায়। ’ -হায়াতুল ইমাম হোসাইন (আ.) , 2য় খণ্ড , পৃ. 264 ;মুকরিম , মাকতালুল হোসাইন , পৃ. 283।-সম্পাদক

375. আল-আবকারীল হিসান , 1ম খণ্ড , পৃ. 199 ;আশকে হোসাইনী সারময়ে শিয়ে , পৃ. 36-37।

376. যিয়ারত বলতে এখানে যিয়ারতনামা বুঝানো হয়েছে যা কোন পবিত্র ও সম্মানীয় ব্যক্তির , বিশেষত মহানবী (সা.) ও তাঁর বংশধর ইমামদের রওযায় গিয়ে পাঠ করা হয়। তবে মূল অর্থে যিয়ারত হলো তাঁদের কবরের নিকট সালাম দানের জন্য উপস্থিত হওয়া-যা একটি মুস্তাহাব আমল। এ কারণে আহলে সুন্নাতের আলেমরাও সমবেতভাবে ও একাকী আল্লাহর ওলীদের যিয়ারতে যেতেন।-ইবনে হাজার আসকালানী , আত-তাহযিবুত তাহযিব , 7ম খণ্ড , পৃ. 339 ;ইবনে হিব্বান , আস-সিকাত , 8ম খণ্ড , পৃ. 457। রাসূল (সা.)-এর সাহাবারা তাঁর রওযা যিয়ারতে যেতেন। দ্রষ্টব্য: যাহাবী , সিয়ারু আলামিন নুবালা , 1ম খণ্ড , পৃ. 358 ;ইবনে কাসির , আল-বিদায়া ওয়ান নিহায়া , 9ম খণ্ড , পৃ. 214 ;আল-মুগনি , 1ম খণ্ড , পৃ. 566 ;শারহে মুয়াত্তায়ে মালিক , লাখনাভী , 3য় খণ্ড , পৃ. 448 ;উসদুল গাবা , 1ম খণ্ড , পৃ. 208 ;তারীখে দিমাশক , 7ম খণ্ড , পৃ. 137 ;নাইলিল আওতার , 5ম খণ্ড , পৃ. 180।-সম্পাদক

377. মহান আল্লাহ মুমিনদের ওপর মহানবী (সা.)-এর রক্তসম্পর্কীয় বংশধরদের প্রতি ভালোবাসাকে ফরয করেছেন এবং এ কর্মকে পুণ্যকর্ম বলে অভিহিত করেছেন। (সূরা শুরা : 23) তাই যিয়ারতের মাধ্যমে তাঁদের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ আল্লাহর নৈকট্যের কারণ।-সম্পাদক

378. কেউ মহান আল্লাহর সাহায্যকারী হতে হলে অবশ্যই প্রথমে তাকে তাঁর নবী ও তাঁর উত্তরাধিকারী নেতাদের সাহায্যকারী ও সঙ্গী হতে হবে। যেমনভাবে ঈসা (আ.) বলেছেন : কে আল্লাহর পথে আমার সাহায্যকারী হবে ? (সূরা ছফ : 14) অর্থাৎ ঈসা (আ.)-এর সাহায্যকারী হওয়ার মাধ্যমেই কেবল কেউ আল্লাহর সাহায্যকারী হতে পারে। তাই তাঁর পছন্দনীয় ও মনোনীত ব্যক্তিদের সঙ্গী হয়েই তাঁর পথের সৈনিক হওয়া সম্ভব। এধরনের ব্যক্তিদেরই তিনি পবিত্র কোরআনে সাদিকীন ’ বলে অভিহিত করে মুমিনদেরকে সবসময় তাঁদের সাথে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। (সূরা তাওবা : 119) যিয়ারতের এ অংশটি এ নির্দেশেরই বাস্তবায়ন।-সম্পাদক

379. সূরা ফাতির : 6।

380. সূরা মুমতাহিনা : 4।

381. সূরা ফাত্হ্ : 29।

382. প্রাগুক্ত ।

383. ইবনে ইমাদ হাম্বালী কারবালার মর্মান্তিক ঘটনা বর্ণনার পর বলেন : আল্লাহ তাদের হত্যা করুন যারা এ কাজ (হোসাইনকে হত্যা ও তাঁর পরিবারবর্গকে বন্দি) করেছে এবং তাঁদের সাথে অবমাননাকর আচরণ করেছে ;আর তাকেও হত্যা করুন যে এ নির্দেশ দিয়েছে ও যারা এ অন্যায় কর্মে সন্তুষ্টি ব্যক্ত করেছে। ’ (শাজারাতুয যাহাব , 1ম খণ্ড , পৃ. 61-66)-সম্পাদক

384. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 3য় খণ্ড , 5ম অধ্যায়।

385. নাহজুল বালাগা : খুতবা : 186 , পৃ. 185।

386. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 1ম খণ্ড , 2য় অধ্যায়।

387. আল-মিসবাহ (জান্নাতুল আমানাল ওয়াকিয়া ওয়া জান্নাতুল ঈমানুল বাকিয়া) , ইবরাহীম ইবনে আলী কাফ ’ আমী , 1ম খণ্ড , পৃ. 596।

388. হাফিজ।

389. উসূলে কাফি , 2য় খণ্ড , কিতাবুদ দোয়া , বাবুল বুকা।

390. দেখুন : দুস্ত শেনাছি ও দুশমন শেনাছি দার কোরআন , 3য় অধ্যায়।

391. আবু হামজায়ে ছুমালি , মাফাতিউল জিনানের দোয়া।

392. উসূলে কাফি , 2য় খণ্ড , কিতাবুদ দোয়া বাবুল বুকা।

393. বিহারুল আনওয়ার , 73তম খণ্ড , পৃ. 176।

394. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 2য় খণ্ড , 3য় আধ্যায়।

395. উসূলে কাফি , 2য় খণ্ড , কিতাবুদ দোয়া , বাবুল বুকা।

396. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 3য় খণ্ড , 5ম অধ্যায়।

397. সূরা ইসরা , আয়াত : 107-109।

398. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 1ম খণ্ড , 2য় আধ্যায়।

399. মিজানুল হিকমা , 1ম খণ্ড , পৃ. 455 , রেওয়ায়াত : 1845।

400. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 3য় খণ্ড , 5ম অধ্যায়।

401. সূরা মারইয়াম : 58।

402. হাফিজ।

403. সূরা মায়িদা , আয়াত 83।

404. মাকালাত , 3য় খণ্ড , পৃ. 379।

405. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 3য় খণ্ড , 5ম অধ্যায়।

406. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , কিতাবুদ দোয়া , বাবুল বুকা।

407. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , কিতাবুদ দোয়া , বাবুল বুকা।

408. মাফাতিহুল জিনান , বিশ্বাসীদের নেতা আলী (আ.)-এর যিয়ারতের পরে পড়ার দোয়া।

409. আবু হামযা ছুমালি , মাফাতিহুল জিনান-এর দোয়ার অংশ।

410. মিরআতুল উকুল , 12তম খণ্ড , পৃ. 56।

411. খাসায়েসুল হোসাইন , পৃ. 140।

412. মুসনাদে ইমাম রেযা (আ.) 2য় খণ্ড , পৃ. 27।

413. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 291।

414. প্রাগুক্ত , পৃ. 285।

415. মহান আল্লাহ বলেন : এবং যে কেউ আল্লাহ ও রাসূলের আনুগত্য করবে সে সেই (প্রিয়) বান্দাদের সাথি হবে নবিগণ , সত্যবাদিগণ , শহীদগণ এবং সৎকর্মপরায়ণদের মধ্য থেকে যাদের আল্লাহ (স্বীয় বিশেষ) নিয়ামত দ্বারা সমৃদ্ধ করেছেন। ’ (সূরা নিসা : 69) সুতরাং প্রত্যেক মুমিনের পরম কামনা হওয়া উচিত এই মহান ব্যক্তিদের সাথে সংযুক্ত হওয়া। আর তাঁদের থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার কারণে ক্রন্দন করা।-সম্পাদক

416. খাসায়েসুল হোসাইনীয়া , পৃ. 142: ওসায়েলুশ শিয়া , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 1121 , 1124।

417. অয়িনে মেহেরবারজী , আহলে বাইতের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ অংশে।

418. মিযানুল হিকমা , 1ম খণ্ড , পৃ. 445।

419. বিহারুল আনওয়ার , 71তম খণ্ড , পৃ. 281।

420. প্রাগুক্ত , 70তম খণ্ড ,, পৃ. 55।

421. প্রাগুক্ত , 78তম খণ্ড , পৃ. 73।

422. প্রাগুক্ত , 75তম খণ্ড , পৃ. 370।

423. মুসতাদরাকুল ওয়াসায়েল , 2য় খণ্ড , পৃ. 341।

424. তানবিহুল খাওয়াতির , পৃ. 360।

425. বিহারুল আনওয়ার , 1ম খণ্ড , পৃ.203 ।

426. প্রাগুক্ত , 77তম খণ্ড , পৃ. 45।

427. প্রাগুক্ত , 77তম খণ্ড , পৃ. 45।

428. প্রাগুক্ত , 14তম খণ্ড , পৃ. 309।

429. প্রাগুক্ত , 77তম খণ্ড , পৃ. 199।

430. প্রাগুক্ত , 78তম খণ্ড , পৃ. 115।

431. প্রাগুক্ত , 78তম খণ্ড , পৃ. 308।

432. মুজামুল আলফাজ গুরারুল হিকাম , পৃ. 863।

433. বিহারুল আনওয়ার , 1ম খণ্ড , পৃ. 203।

434. মিশকাতুল আনওয়ার , পৃ. 107।

435. মিশকাতুল আনওয়ার , পৃ. 107।

436. নাহজুল বালাগা , খুতবা : 222।

437. প্রাগুক্ত ।

438. নাহজুল বালাগা , খুতবা : 176।

439. বিহারুল আনওয়ার , 93তম খণ্ড , পৃ. 284।

440. যেমনভাবে মহান আল্লাহ গুনাহগার মুমিনদের তাদের গুনাহ ও যুলমের কারণে রাসূল (সা.)-এর শরণাপন্ন হওয়াকে ক্ষমা লাভের উপায় বলেছেন : (হে রাসূল!) যখন তারা (অবাধ্যতা করে) নিজেদের (আত্মার) প্রতি অবিচার করেছিল , যদি তোমার নিকট আসত এবং আল্লাহর নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করত আর রাসূলও তাদের জন্য ক্ষমা চাইত , তবে অবশ্যই তারা আল্লাহকে অতিশয় ক্ষমাশীল , অনন্ত করুণাময় পেত। (সূরা নিসা : 64)-সম্পাদক

441. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 2য় অধ্যায় , পঙ্ক্তি 22-23।

442. তাজাসসোমে আমাল ওয়া শাফায়াত , পৃ. 106-116।

443. বিহারুল আনওয়ার , 8ম খণ্ড , পৃ. 53।

444. মাওলানা রুমি , মাসনাবী , 5ম অধ্যায় , পঙ্ক্তি 2262-2267।

445. মুনতাখাবুল মিজানুল হিকমা , পৃ. 249।

446. সুতরাং তুমি সত্যের প্রতি একনিষ্ঠ হয়ে তোমার মুখ (সমগ্র অস্তিত্ব) সত্যধর্মের প্রতি নিবদ্ধ কর ;আল্লাহর সেই প্রকৃতি যার ওপর তিনি মানুষকে সৃষ্টি করেছেন , আল্লাহর সৃষ্টিতে কোন পরিবর্তন নেই ;এটাই সরল ও প্রতিষ্ঠিত ধর্ম। (সূরা রোম : 30)

447. আল্লামা তাবাতাবাঈ , আল-মিজান , 16তম খণ্ড , পৃ. 203।

448. আনগিজেস্ ও হায়াযান , পৃ. 367।

449. রাওয়ান শেনোসী শাদী , পৃ. 42 ও 172।

450. যেল্বেহয়ে শাদী দার ফারহাঙ্গ ওয়া শারিয়াত , পৃ. 47।

451. রাওয়ান শেনাসী শাদী , রাওয়ান শেনাসী কামাল , রযে সদেহ যিস্তি এবং... ।

452. কবি : নাসের খসরু।

453. ওয়াসায়েলুশ্ শিয়া , 4র্থ খণ্ড , বাবে মালাবেস ;আমালি , শেখ তূসী , হাদীস নং : 45 ;বিহারুল আনওয়ার , 71তম খণ্ড , পৃ. 95 ;অয়িনে জেন্দেগী , পৃ. 34।

454. কবি : রুদাকি।

455. সূরা তাওবা : 82।

456. গুফ্তারহা , 2য় খণ্ড , পৃ. 255-256।

457. সূরা আরাফ , আয়াত 32।

458. গুফ্তারহা , 2য় খণ্ড , পৃ. 227-228।

459. তুহাফুল উকুল , হাররানী , পৃ. 49।

460. গুরারুল হিকাম , হাদীস নং 2023।

461. বিহারুল আনওয়ার , 78তম খণ্ড , পৃ. 663।

462. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 663।

463. বিহারুল আনওয়ার , 85তম খণ্ড , পৃ. 321।

464. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 192।

465. ওয়াসায়েলুশ শিয়া , 12তম খণ্ড , পৃ. 122 ;বিহারুল আনওয়ার , 16তম খণ্ড , পৃ. 112।

466. কবি : ফেরদৌসি

467. আখলাকে ইসলামী , পৃ. 98-99 ;আখলাকে ইলাহী , 5ম খণ্ড , পৃ. 238।

468. রাসূল (সা.)-এর একজন সাহাবী তাঁকে জিজ্ঞেস করেন : যদি আমার বন্ধুর সাথে রসিকতা ও হাসি-ঠাট্টা করি , তাহলে কোন অসুবিধা আছে কি ? জবাবে তিনি বলেন : যদি কথার মধ্যে কোন অর্থহীন কিছু না থাকে তাহলে সমস্যা নেই। ’ উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 663 ;তুহাফুল উকুল , পৃ. 323।

469. গুরারুল হিকাম , পৃ. 222।

470. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 665।

471. আখলাকে ইলাহী , 5ম খণ্ড , পৃ. 256-257।

472. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 664।

473. গুরারুল হিকাম , পৃ. 222।

474. আখলাকে ইলাহী , 5ম খণ্ড , পৃ. 258-259।

475. প্রাগুক্ত।

476. উসূলে কাফী , 2য় খণ্ড , পৃ. 163 ;ওয়াসায়েলুশ শিয়া , 20তম খণ্ড , পৃ. 213।

477 কবি : শাবেস্তারী।

478. মাওলানা জালালুদ্দিন রুমী।

479. মাওলানা জালালুদ্দিন রুমী।

480. মুমিনদের নেতা আলী (আ.) আরেফদের বর্ণনায় বলেছেন : দুনিয়া ত্যাগীরা বাহ্যিকভাবে হাসে কিন্তু তাদের অন্তর কাঁদে ;যদিও আনন্দিত থাকে কিন্তু অন্তরে দুঃখ ও ব্যথা-বেদনা থাকে। ’ -নাহজুল বালাগা , খোতবা : 113 ;শারহে মাকামাতে আরবাঈন , পৃ. 260-162।

481. সূরা শুরার 23 নং আয়াত যেখানে মুমিনদের ওপর মহানবীর আহলে বাইতের প্রতি ভালোবাসাকে ফরয করা হয়েছে।-সম্পাদক

482. সূরা নিসার 93 নং আয়াত যেখানে সাধারণ কোন নিরপরাধ মুমিনকে হত্যার শাস্তি আল্লাহর ক্রোধে পতিত হওয়া , তাঁর অভিশাপ বর্ষিত হওয়া এবং চিরন্তন মর্মন্তুদ শাস্তি বলা হয়েছে। সেখানে রাসূলের প্রাণপ্রিয় দৌহিত্র যাঁকে আল্লাহ বেহেশতের যুবকদের নেতা মনোনীত করেছেন , তাঁকে হত্যার শাস্তি কী হতে পারে!-সম্পাদক

483 যেমনটি ইবনে তাইমিয়া করেছে। সে ইমাম হোসাইনকে ফিতনা সৃষ্টিকারী অভিহিত করে তাঁর সমালোচনা করেছে। এর বিপরীতে ইয়াজিদের খেলাফতকে বৈধ বলেছে। (মিনহাজুস সুন্নাহ , 2য় খণ্ড , পৃ. 247-257 ;4র্থ খণ্ড , পৃ. 522-531) । অবশ্য তার থেকে এর বিপরীত কিছু আশা করা যায় না। কারণ সে হযরত ফাতিমাকেও আখেরাতের ওপর দুনিয়াকে প্রাধান্য দানকারী হিসাবে তাঁর কর্ম মুনাফিকদের মত ছিল বলেছে। ইবনে তাইমিয়া হযরত ফাতিমাকে নিম্নোক্ত আয়াতের দৃষ্টান্ত বলেছে: তাদের (মুনাফিকদের) মধ্যে এমন কিছু সংখ্যক লোক রয়েছে যারা সাদাকার (যাকাত বণ্টনে) ব্যাপারে তোমাকে দোষারোপ করে। অতঃপর যদি তা হতে তাদের কিছু দান করা হয় , তবে তারা সন্তুষ্ট হয় এবং যদি তা হতে তাদের কিছু না দেওয়া হয় তখন তারা ক্ষুব্ধ হয় (সূরা তওবা : 58) । (মিনহাজুস সুন্নাহ , 4র্থ খণ্ড , পৃ. 245-246)-সম্পাদক

484. শারহুন্নাবাবী , 5ম খণ্ড , পৃ. 308।

485. সীয়ারু আলামিন নুবালা , 18তম খণ্ড , পৃ. 468।

486. প্রাগুক্ত , পৃ. 379।

487. ওয়াসায়েলুশ শিয়া , 22তম খণ্ড , পৃ. 402 এবং 3য় খণ্ড , পৃ. 274।

488. মাজমাউল বাহরাইন , 1ম খণ্ড , পৃ. 237 ;মুঈন , মোহাম্মাদ , ফারসি অভিধান , 1ম খণ্ড , পৃ. 1185 ;মুফরাদাতে রাগেব , পৃ. 81।

489. মুহাদ্দেছি , জাওয়াদ , দারস্হাঈ আজ যিয়ারতে আশুরা , পৃ. 14 ;আজিজি তেহরানি , আসগার ;শারহে যিয়ারতে আশুরা পৃ. 35।

490 .ثأرالله ফারহাঙ্গে আশুরা।

491. আল-মাহাসেন , বারকি , 1ম খণ্ড , পৃ. 291।

492. মাসনভী , পঞ্চম দফতর।

493. বিহারুল আনওয়ার , 70তম খণ্ড , পৃষ্ঠা 39।

494. প্রাগুক্ত।

495. উসূলে কাফি , 2য় খণ্ড , পৃ. 478।

496. প্রাগুক্ত ।

497. যেদিন গোপন বিষয়সমূহ প্রকাশিত হবে (সূরা আ ’ লা : 9) ।

498. বিহারুল আনওয়ার , 73 তম খণ্ড , পৃ. 157।

499. উসূলে কাফি , 2য় খণ্ড , কিতাবুদ দোয়া।

500. উসূলে কাফি , 2য় খণ্ড , কিতাবুদ দোয়া , বাবুল বুকা।

501. উসূলে কাফি , 2য় খণ্ড।

502. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড ,পৃ. 116।

503. আইয়ানুশ্ শিয়া , 1ম খণ্ড , পৃ. 597।

504. ইমাম হোসাইন (আ.)-এর বাণী সমগ্র , পৃ. 328।

505. সহিফায়ে নূর , 1ম খণ্ড , পৃ. 65।

506. আল আমালি , শেখ তুসি , পৃ. 66।

507. যখন তিনি বলেন , শাহাদাত আমার কাছে মধুর চেয়েও মিষ্টি। ’

508 সূরা শোআরা:3।

509. কামেলুয যিয়ারাত , 14তম অধ্যায় , পৃ. 14 ;তিরমিযি , 5ম খণ্ড , পৃ. 658 , হাদীস 3775।

510. মদীনা থেকে কারবালা পর্যন্ত ইমাম হোসাইনের বক্তৃতাসমগ্র , পৃ. 219।

511. মিজানুল হিকমাহ্ , 5ম খণ্ড , পৃ. 36 , হাদীস নং 10243।

512. প্রাগুক্ত , হাদীস নং 10238।

513. প্রাগুক্ত , পৃ. 367 , হাদীস নং 10235।

514. প্রাগুক্ত , হাদীস নং 10234।

515. সূরা আনকাবুত , আয়াত নং 45।

516. মিজানুল হিকমাহ্ , 5ম খণ্ড , পৃ. 71 , হাদীস নং 10254-5।

517. মিজানুল হিকমাহ্ , 5ম খণ্ড , পৃ. 369 , হাদীস নং 10254।

518. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 392।

519. বিহারুল আনওয়ার , 44তম খণ্ড , পৃ. 392।

520. ওয়াসায়েলুশ শিয়া , 11তম খণ্ড , পৃ. 197।

521. বিহারুল আনওয়ার , 45 তম খণ্ড , পৃ. 8।

522. প্রাগুক্ত , পৃ. 5।

523. সূরা মুজাদিলা , আয়াত নং 19।

524. বিহারুল আনওয়ার , 44 তম খণ্ড , 35তম অধ্যায়।

525. কামিলুয যিয়ারত , 79 পরিচ্ছেদ , পৃ. 196।

526. প্রাগুক্ত , পৃ. 242।

527. শেখ আব্বাস কুমি , মুনতাহাল আমাল , 1ম খণ্ড , পৃ. 613।

528. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 14।

529. ফুরুগে শাহাদাত , পৃ. 208।

530. প্রাগুক্ত ।

531. বিহারুল আনওয়ার , 44 তম খণ্ড , পৃ. 393।

532. আব্বাস কুম্মী , মুনতাহাল আমাল , 1ম খণ্ড , পৃ. 607 ;আশুরা অভিধান , পৃ. 201।

533. ফুরুগে শাহাদাত , পৃ. 200।

534. রেসালাতুল লুববুল আলবাব , আল্লামা সাইয়্যেদ মুহাম্মাদ হোসাইন তেহরানী , পৃ. 25।

535 তারীখে তাবারী , 7ম খণ্ড , পৃ. 167।

536. বিহারুল আনওয়ার , 45তম খণ্ড , পৃ. 32।

537. প্রাগুক্ত।

538. ফুরুগে শাহাদাত , পৃ. 214।

539. বিহারুল আনওয়ার ,44তম খণ্ড ,পৃ.291 ও আল-খাসায়িসুল হোসেইনিয়াহ ,পৃ ,142

540. বিহারুল আনওয়ার ,51তম খণ্ড ,পৃ.151

541. প্রাগুক্ত ,72তম খণ্ড ,পৃ.59 ।

542. প্রাগুক্ত ,78তম খণ্ড ,পৃ.309 ।

543. উসূলে কাফী ,2য় খণ্ড ,পৃ.কিতাবুদ দুআ বাবুল বুকা ।

544. মিজানুল হিকমাহ ,1ম খণ্ড ,পৃ.453 ,হাদীস 1836 ।

545. সুনানুন্নাবী ,পৃ.60 ।

546. বিহারুল আনওয়ার ,77তম খণ্ড ,পৃ.155 ।

547. প্রাগুক্ত ,16তম খণ্ড ,পৃ.295 ।

548. মিজানুল হিকমাহ ,পৃ.482 ।

549. ঐ ,পৃ.484 ।

550. বিহারুল আনওয়ার ,69তম খণ্ড ,পৃ.411 ।

551. উসূলে কাফী ,2য় খণ্ড ,কিতাবুদ দুআ বাবুল বুকা ।

552. প্রাগুক্ত ।

553. মিজানুল হিকমাহ , 5ম খণ্ড , পৃ.484।

554. বিহারুল আনওয়ার ,83তম খণ্ড ,পৃ.248 ।

555. প্রাগুক্ত ,78তম খণ্ড ,পৃ.330 ।

556. শারহে নাহজুল বালাগাস ,16তম খণ্ড ,পৃ.22 ।

557. হোসাইন আমার থেকে ,আমি হোসাইন থেকে । -এ হাদীসটির প্রতি ইশারা করা হয়েছে । হাদীসটির সূত্রসমূহ:মুসান্নাফ ,ইবনে আবি শাইবা ,ষষ্ঠ খণ্ড ,পৃ.380(হাসাস হাদীস) ;আল-মুসতাদরাক আলাস সাহিহাইন ,3য় খণ্ড ,পৃ.194(সহীহ হাদীস) ;মাযমাউয যাওয়াইদ ,হাইসামী ,9ম খণ্ড ,পৃ.181 ;আসসাহিহ ,ইবনে হিব্বান ,15তম খণ্ড ,পৃ.427 ;আলবানী ,সুনানুত তিরমিযি ,হাদীস 3775(হাসান হাদীস) ;আলবানী ,সিলসিলাতু আহাদিসিস সাহিহাহ (মুখতাছারাহ) ,3য় খণ্ড ,পৃ.229 ;তিরমিযি ,আস সুনান ,5ম খণ্ড ,পৃ.658 ;ইবনে হাম্বাল ,মুসনাদে আহমাদ ,4র্থ খণ্ড ,পৃ.172 ;বুখারী আদাবুল মুফরাদ ,1ম খণ্ড ,পৃ.133 ;তাবারানী ,মোযামুল কাবির ,3য় খণ্ড ,পৃ.33 ;ইবনে মাযাহ ,সুনান ,1ম খণ্ড ,পৃ.51 । -সম্পাদক

558. ইসতিফ্তায়ে ইমাম খোমেইনী , 1ম খণ্ড এবং মাকাসেবে মুহাররামাহ্ , মাসআলা 70 ;আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আজবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1440 ;আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী , ইসতিফ্তায়াত , 1ম খণ্ড , মাসআলা 572 ও 573 ;আয়াতুল্লাহ ফাজেল লানকারানী , জমেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড , মাসআলা 2166 ও 2170 ;আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 596 ;আয়াতুল্লাহ তাবরিযি , ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 2003 , 2005 ও 2014।

559. আয়াতুল্লাহ সাফী , জামেউল আহকাম , 2য় খণ্ড , মাসআলা 1599।

560. ইমাম খোমেইনী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাকাসেবে মুহাররামাহ্ , পৃ. 72 ;আয়াতুল্লাহ জাওয়াদ তাবরিযি , ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 2007 ;আয়াতুল্লাহ ফজেল লানকারানী , জামেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড , মাসআলা 2174 ;আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী , ইসতিফ্তায়াত , 1ম খণ্ড , মাসআলা 579 ;আয়াতুল্লাহ সিসতানী , শায়ায়েরে দ্বীনি ওয়েব সাইট।

561. আজবেবাতুল ইসতিফতায়াত , প্রশ্ন নং 1444।

562. আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 598 , 604।

563. আয়াতুল্লাহ সাফী গুলপাইগানী , জামেউল আহকাম , 2য় খণ্ড , মাসআলা 1595।

564. ইসতিফ্তায়ে ইমাম খোমেইনী , 2য় খণ্ড , মাকাসেবে মুহাররামাহ্ , মাসআলা 30 ;আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আজবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1164 ;আয়াতুল্লাহ ফাজেল লানকারানী , জামেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড , মাসআলা 992 ;আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী , ইসতিফ্তায়াত , 1ম খণ্ড , মাসআলা 524 , 525 ;আয়াতুল্লাহ জাওয়াদ তাবরিযি , ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1054 , 1065 , সিরাতুন নাজাত , 1ম খণ্ড , মাসআলা 1005 ;দাফতারে আয়াতুল্লাহ সিসতানি , আয়াতুল্লাহ ওয়াহিদ খোরাসানী ও আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী।

565. আয়াতুল্লাহ সাফী গুলপাইগানী , জামেউল মাকারেম , 1ম খণ্ড , মাসআলা 1003 , 1015 , 1018।

566. আয়াতুল্লাহ খোমেইনী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাকাসেবে মুহাররামাহ , পৃ. 45। আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আযবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1161। আয়াতুল্লাহ ফাজেল লানকারানী , জামেউল মাসায়েল , 1ম মাসআলা খণ্ড , পৃ. 988 এবং 2176।

567. আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী , ইসতিফ্তায়াত , 1ম খণ্ড , মাসআলা 516 এবং 521। আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 571। আয়াতুল্লাহ জাওয়াদ তাবরিযি , ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 2019। আয়াতুল্লাহ সিসতানী ,sistan.org , মাসআলা 24। আয়াতুল্লাহ ওয়াহিদ খোরাসানীর দফতর।

568. আয়াতুল্লাহ সাফী গুলপাইগানী , তাওজিহুল মাসায়েল , মাসআলা-2833 এবং আয়াতুল্লাহ বাহজাতের দফতর।

569. আয়াতুল্লাহ খোমেইনী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাকাসেবে মুহাররামাহ , পৃ. 27 এবং 36। আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আযবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1441। আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী , ইসতিফ্তায়াত , 1ম খণ্ড , মাসআলা 516। আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 596 ও 604 এবং 1ম খণ্ড , মাসআলা 448। আয়াতুল্লাহ জাওয়াদ তাবরিযি , ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 2009 এবং সিরাতুন নাজাত , 6ষ্ঠ খণ্ড , মাসআলা 477। আয়াতুল্লাহ ফাজেল লানকারানী , জামেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড , মাসআলা 2174।

570. আয়াতুল্লাহ খোমেইনী , ইসতিফ্তায়াত , 3য় খণ্ড , মাসআলা 37। আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আযবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1461। আয়াতুল্লাহ ফাজেল লানকারানী , জামেউল আহকাম , 3য় খণ্ড , মাসআলা 1217।

571. আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী ,makaremshirazi.org কামাযানি।

572. আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 597।

573. আয়াতুল্লাহ জাওয়াদ তাবরিযি , ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 2003 , 2012 , 2014।

574. আয়াতুল্লাহ সাফী গুলপাইগানীর দফতর।

575. আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আজবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1461।

576. আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আজবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1463।

577. আয়াতুল্লাহ খোমেইনী , ইসতিফ্তায়াত , 3য় খণ্ড , প্রশ্ন 34 ও 37। আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আজবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1441। আয়াতুল্লাহ জাওয়াদ তাবরিযি , ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 2003 ও 2012। আয়াতুল্লাহ ফাজেল লানকারানী , জামেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড , মাসআলা 2162 , 2166 , 2173।

578. আয়াতুল্লাহ সাফী গুলপাইগানী , জামেউল আহকাম , 2য় খণ্ড , মাসআলা 1594।

579. আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী , ইসতিফ্তায়াত , 1ম খণ্ড , মাসআলা 1063।

580. আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী ,makaremshirazi.org

581. আয়াতুল্লাহ খোমেইনী , ইসতিফ্তায়াত , 3য় খণ্ড , মাসআলা 46। আয়াতুল্লাহ ফাজেল লানকারানী , জামেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড , মাসআলা 2163 , 2165।

582. আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 765।

583. আয়াতুল্লাহ জাওয়াদ তাবরিযি , ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 2003 ,tabrizi.org

584. আয়াতুল্লাহ সাফী গুলপাইগানী , জামেউল আহকাম , 2য় খণ্ড , মাসআলা 1597।

585. আয়াতুল্লাহ বাহজাত , তাওযিহুল মাসায়েল , মাসআলা 1597।

586. ইসতিফ্তায়াত দাফতারে আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী।

587. আয়াতুল্লাহ ফজেল লানকারানী , জামেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড , মাসআলা 2182। আয়াতূল্লাহ সাফী গুলপাইগানী , জামেউল আহকাম , 2য় খণ্ড , মাসআলা 1581। আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আজবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , পৃ. 1145 , আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , পৃ. 545। আয়াতুল্লাহ খোমেইনী , ইসতিফ্তায়াত , 3য় খণ্ড , আহকামে নাযর , 57655। আয়াতুল্লাহ তাবরিজি , ইসতিফ্তায়াত , পৃ. 1058। আয়াতুল্লাহ ওয়াহিদ খোরাসানির দফতর , আয়াতুল্লাহ বাহজাত , আয়াতুল্লাহ সিসতানি।

588. আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 7645 ও 1ম খণ্ড , মাসআলা 785।

589. আয়াতুল্লাহ ফজেল লানকারানী , জামেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড , মাসআলা 2176 , 2177। আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 599। মারজাদের দপ্তরসমূহ।

590. আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আজবেবাতুল ইসতিফ্তায়াত , মাসআলা 1447 ও সকল মারজা ।

591. ইমাম খোমেইনী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , পৃ. 20 ও 26। আয়াতুল্লাহ বাহজাত , তাওযিহুল মাসায়েল , পৃ. 2135। আয়াতুল্লাহ মাকারেম শিরাজী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , পৃ. 1255। আয়াতুল্লাহ ফজেল লানকারানী , জমেউল মাসায়েল , 1ম খণ্ড ,মাসআলা 8326। আয়াতুল্লাহ নূরী হামাদানী , ইসতিফ্তায়াত , 2য় খণ্ড , মাসআলা 725। আয়াতুল্লাহ জাওয়াদ তাবরিজি , ইসতিফ্তায়াত , প্রশ্ন 1734। দপ্তরে আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী , আয়াতুল্লাহ ওয়াহিদ খোরাসানী ও আয়াতুল্লাহ সাফী গুলপাইগানী।