আল হাসানাইন (আ.)

প্রবন্ধ

কোরআনের তাফসীর
সূরা হিজর; (১৩তম পর্ব)

সূরা হিজর; (১৩তম পর্ব)

মানুষকে সত্য পথের আহ্বান জানাতে গিয়ে কখনো বিরুদ্ধবাদীদের উপহাসে ভ্রুক্ষেপ করতে নেই। তাদের হুমকি-ধমকিও তোয়াক্কা করার প্রয়োজন নেই। কারণ অবিশ্বাসীদের যে কোন অনিষ্ট থেকে আল্লাহ তায়ালা ঈমানদারদের রক্ষা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন

ইমাম আলী বিন হোসাইন (আ.)
ইমাম যাইনুল আবিদিন (আ.) এর শাহাদাত বার্ষিকী

ইমাম যাইনুল আবিদিন (আ.) এর শাহাদাত বার্ষিকী

আজ ইমাম হুসাইনের পুত্র ইমাম যাইনুল আবিদিন সালাওয়াতুল্লাহি আলাইহিমা-এর শাহাদাতের দিন। একটি বর্ণনা অনুযায়ী ৯৫ হিজরীর মহররম মাসের ১২ তারিখের এই দিনে, আবার অন্য একটি বর্ণনা অনুযায়ী ৯৫ হিজরীর মহররম মাসের ২৫ তারিখে ৫৭ বছর বয়সে, জীবনে অনেক দুঃখ-কষ্ট, সংগ্রাম ও ধৈর্য পরীক্ষার পর উমাইয়্যা খেলাফতের অত্যাচারী শাসক ওয়ালিদ বিন আব্দুল মালিকের নির্দেশে হিশাম বিন আব্দুল মালিকের মাধ্যমে বিষ প্রয়োগে শাহাদাত বরণ করেছিলেন রাসূলের পবিত্র আহলে বাইতের চতুর্থ ইমাম, হযরত ইমাম আলী ইবনুল হুসাইন যাইনুল আবিদিন সালাওয়াতুল্লাহি আলাইহি। আল্লাহ ও তাঁর ফেরেস্তাকুলের অবিরাম দরুদ ও সালাম তাঁর উপর বর্ষিত হোক

ইমাম হোসাইন (আ.)
হযরত ইমাম হোসেনের (‘আঃ) আন্দোলনের তাৎপর্য

হযরত ইমাম হোসেনের (‘আঃ) আন্দোলনের তাৎপর্য

একজন মানুষের অনেকগুলো মর্যাদা থাকতে পারে এবং তাঁর সবগুলো মর্যাদা সম্বন্ধে সকলের মধ্যে মতৈক্য না-ও থাকতে পারে। তবে হযরত ইমাম হোসেনের (‘আঃ) যে মর্যাদা সম্পর্কে ইসলামের সকল মাযহাব ও ফির্ক্বাহ্ অভিন্ন মত পোষণ করে তা হচ্ছে, তিনি এবং তাঁর বড় ভাই হযরত ইমাম হাসান (‘আঃ) রাসূলে আকরাম হযরত মুহাম্মাদ (ছ্বাঃ)-এর আহলে বাইতের সদস্য; অপর দু’জন তাঁদের পিতা-মাতা হযরত আলী ও হযরত ফাতেমাহ্ (‘আঃ); এ চারজনের ব্যাপারে এমন কোনো ভিন্ন মত নেই যা এ ব্যাপারে বিন্দুমাত্রও সংশয় সৃষ্টি করতে পারে। আর আহলে বাইতের সদস্যগণ শুধু গুনাহ্ থেকেই মুক্ত নন বরং সকল প্রকার চারিত্রিক ও আচরণগত অপকৃষ্টতা থেকেও মুক্ত (সূরাহ্ আল্-আহযাব: ৩৩)।

কোরআনের তাফসীর
সূরা হিজর; (১২তম পর্ব)

সূরা হিজর; (১২তম পর্ব)

যেই স্রষ্টা বিশ্বজগত সৃষ্টি করেছেন, তিনিই মানব জাতির জন্য উত্তম জীবণ বিধান প্রদান করতে পারেন।

কোরআনের তাফসীর
সূরা হিজর; (১১তম পর্ব)

সূরা হিজর; (১১তম পর্ব)

পাপের সীমা অতিক্রম করার কারণে বহু জতি আল্লাহর গজবে ধ্বংস হয়ে গেছে, ইতিহাস সেই ভয়ংকর স্মৃতি বয়ে চলে যুগ থেকে যুগান্তরে, যাতে প্রজন্মের পর প্রজন্ম তা থেকে শিক্ষা গ্রহণ করতে পারে। পাপের পরিণতি স্বচক্ষে দেখে মানুষ যাতে সঠিক পথে ফিরে আসতে পারে, মানুষ যাতে সম্বিত ফিরে পায়

ইমাম হোসাইন (আ.)
ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তাঃ হযরত ইমাম হোসাইন (আ.)-এর সুমহান মর্যাদা

ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তাঃ হযরত ইমাম হোসাইন (আ.)-এর সুমহান মর্যাদা

বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.)এর প্রাণপ্রিয় দৌহিত্র,বেহেশতী নারীদের নেত্রী হযরত ফাতিমার (সা.) কলিজার টুকরা এবং  জ্ঞানের দরজা আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী (আ.)’র সুযোগ্য দ্বিতীয় পুত্র এবং ইসলামের চরম দূর্দিনের ত্রাণকর্তা ও শহীদদের নেতা হযরত ইমাম হোসাইন (আ.)-এর সুমহান মর্যাদা সম্পর্কে সংক্ষিপ্তাকারে কিছু আলোচনা করব ইনশাআল্লাহ।

কোরআনের তাফসীর
সূরা হিজর; (১০ম পর্ব)

সূরা হিজর; (১০ম পর্ব)

পাপ হচ্ছে এক ধরনের উন্মত্ততা। এর ফলে মানুষের জ্ঞান বুদ্ধি অসার হয়ে পড়ে। মানুষ তখন আর সত্যকে উপলব্ধি করতে পারে না।

ইমামত
ঐশী নেতৃত্ব ও রাষ্ট্রীয় নেতৃত্বের পারস্পরিক সম্পর্ক

ঐশী নেতৃত্ব ও রাষ্ট্রীয় নেতৃত্বের পারস্পরিক সম্পর্ক

মা‘ছূম ইমাম যিনি নবী নন তিনি হচ্ছেন নবী-রাসূলের (আঃ) অনুপস্থিতিতে বা অবর্তমানে তাঁর স্থলাভিষিক্ত। কোরআন মজীদের সুস্পষ্ট ঘোষণা অনুযায়ী নবী-রাসূলগণের (আঃ) মূল দায়িত্ব শুধু আল্লাহর বাণী পৌঁছে দেয়া তথা দ্বীনের প্রচার, তবে তাঁদের কর্মনীতিতে দেখা যায় যে, যখন তাঁরা ঐশী হুকূমাত প্রতিষ্ঠার জন্য উপযুক্ত পরিবেশ পেয়েছেন তখন হুকূমাত প্রতিষ্ঠা  বা পরিচালনা করেছেন; এরূপ অবস্থায় জনগণের মধ্যে বিচার-ফয়ছ্বালাহ্ করা তথা হুকূমাত পরিচালনার জন্য কোরআন মজীদে নির্দেশ ও নির্দেশনা রয়েছে।

ইমাম হোসাইন (আ.)
ইয়াজিদ কর্তৃক ইমাম হুসাইনকে (আ.) হত্যার প্রমানঃ

ইয়াজিদ কর্তৃক ইমাম হুসাইনকে (আ.) হত্যার প্রমানঃ

ইয়াজিদ, ইসলামে অনেক খারাপ কাজ করেছে। তার শাসন কালের শেষ দিকে হাররা এর ঘটনায় সে আহলে মদিনাকে হত্যা করেছে, সে সর্বোত্তম লোকেদের ও অবশিষ্ট সাহাবীদের হত্যা করেছে। তার শাসনের প্রথম দিকে হুসাইনকে ও তার আহলে বাইতেদেরকে হত্যা করে। সে মসজিদে হারামে ইবনে যুবাইরকে ঘেরাও করে। সে কাবা ও ইসলামের পবিত্রতা নষ্ট করে আর এই সময় আল্লাহ তাকে মউত দেয়।

কোরআনের তাফসীর
সূরা হিজর; (৯ম পর্ব)

সূরা হিজর; (৯ম পর্ব)

ঈমান এবং সৎকর্ম হলো আল্লাহর অনুগ্রহ লাভের একমাত্র মানদণ্ড। নবী-রাসুলদের আত্মীয়রাও পাপের দায় থেকে মুক্তি পাবে না। যেমনটি হযরত লুত (আ.)এর স্ত্রীর ক্ষেত্রে ঘটেছে

আপনার মতামত

মন্তব্য নেই
*
*

আল হাসানাইন (আ.)